avertisements 2

সিডনীতে প্রথমবারের মতো “বাংলাদেশী ওয়েডিং এক্সপো ২০২৪” অনুষ্ঠিত

ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশ: ১২:০০ এএম, ২১ ফেব্রুয়ারী, বুধবার,২০২৪ | আপডেট: ১১:২১ পিএম, ১৮ জুন,মঙ্গলবার,২০২৪

Text

গতকাল ১৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ সিডনির বুকে "নিকাহ বাই নাজিয়া মাহমুদ"- এর কর্ণধার সর্বজন শ্রদ্ধেয় নাজিয়া মাহমুদের  উদ্যোগে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হল “বাংলাদেশী ওয়েডিং এক্সপো ২০২৪”। বিপুল সংখ্যক দর্শনার্থীর পদচারণায় গতকাল সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত মুখরিত ছিল ম্যাকুয়ারী লিংক ইন্টারন্যাশনাল গল্ফ ক্লাবের প্রদর্শনী প্রাঙ্গন।প্রদর্শনীতে পাঁচ হাজারেরও অধিক বাঙালির সমাগমে উৎসবমুখর এক পরিবেশের অবতারণা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিটি অফ ক্যান্টারবুরীর কাউন্সিলর সাজেদা আক্তার সানজিদা সহ সিডনির বাংলাদেশী কমিউনিটির আরও অনেক গণ্য-মান্য ব্যক্তিবর্গ। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশী প্রবাসীদের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতিতে, সিডনির বুকে বাঙালিয়ানা অস্তিত্বের মহিমা ফুটে উঠে। এ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রবাসের বুকে বিশুদ্ধ বাংলাদেশী বিবাহ উৎসব আয়োজনের সব ক্ষেত্রগুলো প্রদর্শিত হয়।

সিডনির সব নামিদামি বাংলাদেশী রেস্তোরাঁ ও খাদ্য পরিবেশন সেবাসমূহ, তার সাথে অনলাইন ভিত্তিক পোশাক ও ঐতিহ্যবাহী গহনার বিপণিগুলো তাদের সম্ভার নিয়ে এই প্রদর্শনীতে অংশ গ্রহণ করে। এছাড়াও একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যেসব উপকরণ ও সেবা সমূহের সম্পৃক্ততা থাকে, তার প্রায় সবই  উপস্থিত ছিল এই প্রদর্শনীতে।

এই প্রদর্শনীতে বাংলাদেশ থেকে প্রথমবারের মতো আমাদের ঐতিহ্যের প্রতীক ঢাকাই জামদানির স্বনামধন্য ও নির্ভরযোগ্য প্রতিষ্ঠান "কারুতন্ত্র",  সম্মিলিতভাবে অস্ট্রেলিয়াতে তাদের যাত্রা শুরু করল সিডনির জনপ্রিয় শাড়ী-বিপনী "পাড় আঁচল শাড়ীজ" এর সাথে । এখানে উল্লেখ্য, অনুষ্ঠানে উদ্যোক্তা নাজিয়া মাহমুদ ও প্রধান অতিথি কাউন্সিলর সানজিদা আক্তার বাংলার কারু ও ঐতিহ্যকে তুলে ধরতে "কারুতন্ত্র অস্ট্রেলিয়ার" সৌজন্যে জামদানি শাড়ি পরিধান করেন।

এই প্রদর্শনীতে সিডনি প্রবাসী বাংলাদেশিদের ঢল এটাই প্রমান করে যে আমরা সুদূর প্রবাসে থেকেও আমাদের শেকড়কে ভুলতে পারিনি। আমাদের আবেগে, আমাদের ঐতিহ্যে, আমাদের অস্তিত্বে এখনো আমরা ষোলআনা বাঙালিত্বকে ধারণ করে চলেছি এ প্রবাসের বুকে। দেশ থেকে হাজার হাজার মাইল দূরে থেকেও, বিবাহের মতো জীবনের গুরুত্বপূর্ণ উপলক্ষে আমাদের বাঙালির কৃষ্টি ও ঐতিহ্য ফুটে উঠুক এটাই আমাদের প্রত্যাশা। আর আবহমান বাংলার চিরায়ত এ ঐতিহ্যকে বজায় রাখতে এধরণের প্রদর্শনী হতে পারে এক অনন্য আয়োজন।
 

বিষয়:

আরও পড়ুন

avertisements 2