avertisements 2

সিডনিতে বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত তরুনীর রহস্যজনক মৃত্যু, গ্রেপ্তার এক

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: ১২:০০ এএম, ১ ফেব্রুয়ারী,মঙ্গলবার,২০২২ | আপডেট: ১২:৩২ পিএম, ২৯ ফেব্রুয়ারী,বৃহস্পতিবার,২০২৪

Text

 অস্ট্রেলিয়ার সিডনির নর্থ প্যারামাটা এলাকার ভাড়া করা  ফ্ল্যাট থেকে আনিমা হায়াৎ অ্যানি (১৯) নামে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এক তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।সে ওয়েস্টার্ণ সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ে মেডিকেলের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিল।

 অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় গনমাধ্যম সূত্রে জানা যায়,গত ৩০ জানুয়ারী রবিবার স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে ৪টায় প্যারামাটার পেনান্ট হিলস রোডের একটি অ্যাপার্টমেন্টে এসিডভর্তি বাথটাবে শায়িত অবস্থায় তার মৃতদেহ উদ্বার করা হয়।

প্রয়াত  অ্যানি মিরাজ জাফর (২১) নামের এক পাকিস্তানি তরুণের সঙ্গে একবছর ধরে বসবাস করে আসছিলেন বলে জানা গেছে।  মৃতদেহ উদ্বার সময় জাফর যেখানে ছিলো না। পরে পুলিশই অভিযানের মুখে নিজেই পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করে।পুলিশ ঘটনার রহস্য উদঘাটনে তদন্ত অব্যাহত রেখেছে।
এই ঘটনা সম্পর্কে কোন তথ্য থাকলে  ক্রাইম স্টপার্স: 1800 333 000 বা https://nsw.crimestoppers.com.au যোগাযোগ করতে অনুরোধ করা হয়েছে।

সিডনিতে বাংলাদেশি অধ্যুষিত ল্যাকেম্বার হ্যামডেন রোড়ের বাসিন্দা আবু হায়াৎ ও আফ্রাহ রুমা দম্পতির বড় মেয়ে অ্যানি।

সম্প্রতিক বছরগুলোতে স্বামী বা পুরুষসঙ্গী দ্বারা বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত নারীদের হত্যাকান্ডের বেশ কয়েকটি ঘটনা ঘটেছে। ২০২০ সালের ১৪ অক্টোবর ওয়েস্টার্ন সিডনির ওয়েন্টওয়ার্থভিলের লেন স্ট্রিটের একটি ফ্ল্যাটে  সাবহা হাফিজ (২৩) নামে এক সিডনিতে বাংলাদেশী  নারী খুন হয়। সৈয়দা নিরুপমা (৩৫) নামের ওই বাংলাদেশি নারী ২০১৯ সালের এপ্রিল মাসে সিডনির মিন্টোতে স্বামীর হাতে খুন হন।  ২০১৬ সালে  তাসমিম বাহার (৩৫) নামে এক বাংলাদেশি নারী সাবেক সঙ্গীর হাতে নিহত হন।
 

avertisements 2