avertisements 2

জয়পুরহাটে এক মাসে ৩৮ ট্রান্সফরমার চুরি, গ্রেপ্তার ১৬

ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশ: ১২:০০ এএম, ২ ডিসেম্বর,শনিবার,২০২৩ | আপডেট: ০৩:১৩ পিএম, ২৯ ফেব্রুয়ারী,বৃহস্পতিবার,২০২৪

Text

জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে গত এক মাসে ৩৮টি বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার চুরি হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে গত বুধবার রাতে ১৬ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার পুলিশ সুপার (এসপি) এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান। এরপর শুক্রবার রাতে আরও ৩টি ট্রান্সফরমার চুরি হয়। এ ঘটনায় আতঙ্কে এলাকার গভীর-অগভীর নলকূপের মালিকরা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার রাতে উপজেলার সোনামুখী ইউনিয়নের অনন্তপুর গ্রামের মাঠ থেকে কৃষক ইমরান হোসেনের পানি সেচ প্রকল্পের ৫ কেভিএ একটি, ওই এলাকার হাফিজুর রহমানের ৫ কেভিএ একটি ও একই ইউনিয়নের জাফরপুর রেলস্টেশন সংলগ্ন এলাকা থেকে মানিক দেওয়ান নামের এক কৃষকের ১০ কেভিএ ক্ষমতাসম্পন্ন বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার চুরি হয়। চোরেরা বৈদ্যুতিক খুটির উপর থেকে ট্রান্সফরমার নামিয়ে শুধু তামার কয়েল নিয়ে খোলস ফেলে যায়।

জয়পুরহাট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির আক্কেলপুর জোনাল অফিসের ডিজিএম মো. আব্দুর রহমান জানান, শুক্রবারের তিনটিসহ গত এক মাসে ৩৮টি ট্রান্সফরমার চুরি হয়েছে। চোরেরা ট্রান্সফরমারের তামার কয়েল নিয়ে গিয়ে ভাঙ্গারির দোকানে নিয়ে বিক্রি করে।

তিনি বলেন, মামলার পর গ্রেপ্তার করলেও চুরি রোধ করা যাচ্ছে না। গ্রাহকদের ট্রান্সফরমার পাহারা দেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে এবং এলাকায় মাইকিংও করা হয়েছে।

এদিকে ট্রান্সফরমার চুরির ঘটনার মামলার পর গত বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান চালিয়ে ১৬ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে ট্রান্সফরমার চুরির বিভিন্ন সরঞ্জামসহ ৩২ কেজি তামার তার জব্দ করা হয়। এর পরদিন শুক্রবার রাতেও ট্রান্সফরমার চুরি হয়। 

আক্কেলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুর রহমান বলেন, ট্রান্সফরমার চুরি রোধে আমরা কাজ করছি। ইতোমধ্যে চোর চক্রের ১৬ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকেদের গ্রেপ্তার অভিযান অব্যাহত আছে।
 

বিষয়:

আরও পড়ুন

avertisements 2