avertisements 2

পাপুয়া নিউ গিনিতে ভূমিধসে চাপা পড়েছে ৩ শতাধিক

ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশ: ১২:০০ এএম, ২৫ মে,শনিবার,২০২৪ | আপডেট: ০১:৫৩ এএম, ১৭ জুন,সোমবার,২০২৪

Text

ছবি: সংগৃহীত 

পাপুয়া নিউ গিনিতে ব্যাপক ভূমিধসের ঘটনায় অন্তত সহস্রাধিক বাড়িঘর ও ৩০০ জনেরও বেশি মানুষ চাপা পড়েছে। শনিবার স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, ভূমিধসের এ ঘটনায় উত্তরাঞ্চলের প্রত্যন্ত গ্রাম কাওকালাম সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গেছে।

স্থানীয় সময় শুক্রবার ভোররাত প্রায় ৩টার দিকে ঘটা এ ঘটনায় কয়েকশ মানুষের মৃত্যু হয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

গ্রামটি এনগা প্রদেশে। এটি পাপুয়া নিউ গিনির রাজধানী পোর্ট মোরসবি থেকে প্রায় ৬০০ কিলোমিটার উত্তরপশ্চিমে।

গণমাধ্যম পাপুয়া নিউ গিনি পোস্ট কুরিয়ার দেশটির পার্লামেন্টের সদস্য আইসোম আকেমের মন্তব্য উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, ভূমিধসে ৩০০ জনেরও বেশি মানুষ এবং ১১৮২টি বাড়ি মাটির নিচে চাপা পড়েছে।

রয়টার্স জানিয়েছে, তারা সংসদ সদস্য আকেমের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল, কিন্তু তিনি তাদের মন্তব্যের অনুরোধে তাৎক্ষণিকভাবে সাড়া দেননি।

শনিবার পাপুয়া নিউ গিনির প্রতিবেশী রাষ্ট্র অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্র ও বাণিজ্য বিভাগ (ডিএফএটি) জানায়, এ ঘটনায় এনগা প্রদেশের মুলিতাকা অঞ্চলের ছয়টিরও বেশি গ্রাম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ান ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশনের প্রতিবেদনে এলাকাটি থেকে চারটি মৃতদেহ উদ্ধারের কথা জানানো হয়েছে। বিরল জনবসতির ওই এলাকাটিতে উদ্ধারকারী দলগুলো পৌঁছানোর পর উদ্ধারকাজ শুরু হয়েছে।

ভূমিধসের কারণে মহাসড়ক ধরে ওই এলাকায় পৌঁছানো যাচ্ছে না। শুধু হেলিকপ্টারে করে ঘটনাস্থলে পৌঁছতে হচ্ছে বলে গণমাধ্যমটি জানিয়েছে।

সামজিক মাধ্যমে স্থানীয় গ্রামবাসী নিনগা রোলের পোস্ট করা ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, লোকজন বড় বড় পাথর, উপড়ে পড়া গাছের উপর চড়ে আবর্জনার স্তূপ ঘেটে জীবিতদের খোঁজ করছে। দূর থেকে নারী কণ্ঠের কান্নার আওয়াজ পাওয়া যাচ্ছে।

পাপুয়া নিউ গিনির প্রধানমন্ত্রী জেমস মারাপে জানিয়েছেন, দুর্যোগ কর্মকর্তারা, প্রতিরক্ষা বাহিনী এবং পুর্ত ও মহাসড় বিভাগ উদ্ধারকাজে সহায়তা করছে।

বিষয়:

আরও পড়ুন

avertisements 2