avertisements 2

‘ছক্কা চাহিয়ে’ বলার পরই অক্কা

ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশ: ১২:০০ এএম, ২৯ নভেম্বর,সোমবার,২০২১ | আপডেট: ০২:১৪ পিএম, ২৩ জানুয়ারী,রবিবার,২০২২

Text

মিড অন দিয়ে একটি চার মারার পর স্লগ সুইপে তাইজুল ইসলামকে গ্যালারিতে পাঠান হাসান আলি। ৬ উইকেট হারানো থতমত পাকিস্তানকে দ্রুত কিছু রান এনে দেওয়ার মিশনেই হয়ত ছিলেন তিনি। এই সময় গ্যালারি থেকে এক দর্শক চেঁচিয়ে উঠেন 'ছক্কা চাহিয়ে'। ঠিক পরের বলেই ক্রিজ থেকে বেরিয়ে স্টাম্পিং হন হাসান। পাকিস্তান হারায় সপ্তম উইকেট।

চট্টগ্রাম টেস্টের তৃতীয় দিনে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে ম্যাচে দাপট প্রতিষ্ঠা করেছে বাংলাদেশে। হাসানের আউটে ২৩৩ রানে ফেলে দেয় পাকিস্তানের সপ্তম উইকেট। খানিক পর সাজিদ খানকে বোল্ড করেন ইবাদত হোসেন। ২৪০ রানে পড়ে পাকিস্তানের ৮ উইকেট।  প্রথম ইনিংসে ৩৩০ রান করা বাংলাদেশ এখন লিড নেওয়ার পথে।

তৃতীয় দিনে লাঞ্চ বিরতির আগেই ৪ উইকেট ফেলে তেতে থাকা বাংলাদেশ লাঞ্চ থেকে ফিরে আরও ঝাঁজালো শরীরী ভাষা নিয়ে নামে। ইবাদত ও তাইজুলের ছোবলে দিশেহারা হয়ে যায় পাকিস্তান।

হাসান তাইজুলকে ছক্কা মারার সময়েও ভড়কে যায়নি বাংলাদেশ। তখন স্লিপ থেকে নাজমুল হোসেন শান্তদের বলতে শোনা যায় 'মারুক, মারতে দে, মারতে গেলেই আউট', হবে। গ্যালারি থেকে দর্শকের চড়া গলার 'ছক্কা চাহিয়ে' পাকিস্তানি ব্যাটারকে আগ্রাসী হয়ে বিপদে পড়ার টোপের চিন্তাতেই হবে। তাইজুলও বলটি দেন বেশ ঝুলিয়ে। ক্রিজ থেকে বেরিয়ে উড়াতে গিয়ে গড়বড় হয়ে যায় হাসানের। সহজ স্টাম্পিং সারেন লিটন।

তাইজুল এদিন সকাল থেকেই ছিলেন দুর্দান্ত। ফ্লাইট, অল্প টার্ন আদায় করে ব্যাটসম্যানদের কাবু করে চলেছেন তিনি।

বিষয়:

আরও পড়ুন

avertisements 2