avertisements 2

রাস্তার মোড়ে মরদেহ ঝুলিয়ে রাখল তালেবান!

ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশ: ১২:০০ এএম, ২৬ সেপ্টেম্বর,রবিবার,২০২১ | আপডেট: ০৭:৩০ পিএম, ১৭ অক্টোবর,রবিবার,২০২১

Text

বারবার মানবাধিকারের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার আশ্বাস দিলেও তালেবান একটি মরদেহ রাস্তার মোড়ে ক্রেনে ঝুলিয়ে রাখে। আফগানিস্তানের হেরাত শহরের প্রধান মোড়ে এই মরদেহ ঝুলিয়ে রাখা হয়। প্রত্যক্ষদর্শীকে উদ্ধৃত করে শনিবার মার্কিন বার্তা সংস্থা এসোসিয়েটেড প্রেস (এপি) এখবর জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, সুন্নি পশতুন যোদ্ধারা দেশটির তৃতীয় বৃহত্তম শহর হেরাতের প্রধান মোড়ে চারটি মরদেহ নিয়ে আসে। চারটির মধ্যে তিনটি মরদেহ অন্যান্য মোড়ে মানুষের দেখার জন ঝুলিয়ে রাখে।

হেরাত শহরের এক তালেবান কর্মকর্তা আফগানিস্তানের প্রধান টেলিভিশন নেটওয়ার্ক তোলো নিউজকে জানান, ওই চার ব্যক্তির বিরুদ্ধে এক ব্যবসায়ীর ছেলেকে অপহরণের অভিযোগ ছিল। তালেবানদের সঙ্গে লড়াইয়ে অপহরণকারীরা নিহত হয়েছে।তালেবান জানিয়েছে, অন্যান্য অপহরণকারীদের শিক্ষা দিতে চৌরাস্তায় মরদেহ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।

বার্তাসংস্থা এপির খবরে বলা হয়, শহরের ঠিক মধ্যভাগে ক্রেনে একটি মরদেহ ঝুলে থাকতে দেখা গেছে। স্থানীয় দোকানদার ওয়াজির আহমেদ সিদ্দিকি এপিকে বলেন, তালেবানরা শহরে চারটি মরদেহ নিয়ে এসেছিল। একটি মরদেহ শহরের মধ্যভাগে ঝুলানো হয়। বাকি তিনটি অন্যান্য জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয়।

যদিও তালেবানের দাবি বা ওই চার ব্যক্তি কিভাবে নিহত হলেন এ সম্পর্কিত তথ্যগুলো নিরপেক্ষ কোনো সূত্রের মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলেও উল্লেখ করেছে আন্তর্জাতিক বার্তাসংস্থাগুলো।

টলো নিউজ জানিয়েছে, উদ্ধার হওয়া ব্যবসায়ীর ছেলে এবং ব্যবসায়ী নিজে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি। তবে ব্যবসায়ীর আত্মীয়রা টলো নিউজকে জানিয়েছেন, হেরাতে নিজস্ব পেট্রল স্টেশন থেকে অপহরণের শিকার হন ওই ব্যবসায়ীর ছেলে।

স্থানীয়দের দেওয়া তথ্যমতে জানা গেছে, হেরাতে অপহরণ নিয়মিত ঘটনা। ওই প্রদেশে অপহরণকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া প্রতিশ্রুতি দিয়েছে তালেবান।

বিষয়:

আরও পড়ুন

avertisements 2