avertisements 2

সিডনিতে ফাগুন হাওয়ার আয়োজনে বৈশাখী আড্ডা অনুষ্ঠিত

ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশ: ১২:০০ এএম, ১১ মে,শনিবার,২০২৪ | আপডেট: ১১:১৭ পিএম, ১৮ জুন,মঙ্গলবার,২০২৪

Text

ফাগুন হাওয়ার আয়োজনে ৫মে (রবিবার) সিডনিতে ধামাকাদার বৈশাখী আড্ডা অনুষ্ঠিত হয়েছে।দুপুর ১টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত ক্যামসির ওরিয়ন ফাংশন সেন্টারে আয়োজিত এই উৎসবে কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ স্বপরিবারে অংশগ্রহন করেন। ফাগুন হাওয়ার স্বপ্নদ্রষ্টা ও সংগঠনটির প্রেসিডেন্ট তিশা তানিয়ার নেতৃত্বে এই বৃহৎ বৈশাখী আড্ডার আয়োজনটি ছিল জমজমাট, রঙিন এবং প্রানবন্ত।হল ভরা দর্শকের সরব উপস্থিতি প্রমান করছিল আয়োজনটির শতভাগ সাফল্য।

জুঁই সেন পাল ও জুঁই চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতেই বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় সংগীত বাজানো হয়।এরপর পবিত্র কোরান থেকে তেলোয়াত করে মাস্টার শায়ান ইয়াসার জামান।

 প্রথমভাগে ছিল স্থানীয় শিল্পীদের পরিবেশনে মনোমুগ্ধকর নাচ, গান, ফ্যাশন শো ও র‍্যাফল ড্র,। এই পর্বে সঙ্গীত পরিবেশন করেন মারিয়া মুন , শেখ ইসলাম মিন্টু, চারু দলের আয়শা কলি এবং রোকসানা বেগম ও তার কিশলয় কচি কাঁচার শিশু কিশোর শিল্পীরা ।মনোমুগ্ধকর নাচে অংশ নেয় দিহান, আদৃতা, মিশা ও তানকা।কবিতা আবৃত্তি করেন পলি ফরহাদ।আর এর পরপরই বাঙালির ঐতিহ্যবাহী জামদানি শাড়ি পরে ফ্যাসনশো তে অংশ নেন সিডনির স্থানীয় মডেলগন।এই ফ্যাশন শো টি পরিচালনা করেন আয়শা ইসলাম তন্নী।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে শুরুতেই সংগঠনের সভাপতি তিশা তানিয়া তার স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন।সেই সাথে ফাগুন হাওয়ার সাধারন সম্পাদক ও কাউন্সিলর সাজেদা আক্তার সানজিদাকে সব সময় তাকে সহযোগীতা  করার জন্য ও সংগঠনের সকল কাজের কথা বিশেষ ভাবে উল্লেখ করেন।এর পর পরই অনুষ্ঠানে আগত বিশেষ অতিথিদের মঞ্চে আগমন, পরিচয় পর্ব ও সংগঠনের পক্ষ থেকে বিশেষ সম্মাননা সরূপ উত্তরীয় পরানো হয় এবং তারা শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান।উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় মন্ত্রী টনি বার্ক, এমপি, মাননীয় ছায়া মন্ত্রী ডেমিয়েন টুডে হোপ, এমএলসি, মাননীয় ছায়া মন্ত্রী মার্ক কোরে, এমপি,  মেয়র বিলাল এল  হায়েক, ডেপুটি মেয়র রেচেল হ্যারিকা, ডেপুটি মেয়র কাউন্সিলর ইব্রাহিম খালিল, কাউন্সিলর মাসুদ চৌধুরী, কাউন্সিলর জর্জ জাকিয়া, কাউন্সিলর চারবেল আবু রাড, কাউন্সিলর সাজেদা আক্তার সানজিদা কাউন্সিলর কার্ল সালেহ, সাবেক কাউন্সিলর মোঃ শাহে জামান টিটু ও সোশাল ওয়ার্কার সুলতানা আক্তার।

এছাড়াও উক্ত অংশে এই অনুষ্ঠানের সকল স্পনসর দেরকে মঞ্চে ডেকে বিশেষ সম্মাননা সরূপ ক্রেষ্ট প্রদান করা ও আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন সংগঠনের কর্নধার তিশা তানিয়া।
উক্ত অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে ছিল  বিশেষ আকর্ষণ হিসেবে বাংলাদেশ থেকে আগত বাংলা সিনেমা ও ভার্চুয়াল জগতের জনপ্রিয় অভিনেতা (নায়ক) জায়েদ খান, সাম্প্রতিক সময়ে মুক্তিপ্রাপ্ত ঐতিহাসিক ছবি “মুজিব” এ যিনি বঙ্গবন্ধু কন্যা এবং প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ভূমিকায় অভিনয় করে সর্বাধিক পরিচিতি পেয়েছেন সেই নুসরাত ফারিয়া এবং বিশিষ্ট সংগীতশিল্পী এবং এই প্রজন্মের হার্টথ্রব প্রতীক হাসান (প্রয়াত খালিদ হাসান মিলুর ছেলে)।

পর্বের শুরুতেই সুগায়ক প্রতীক হাসান তার মৌলিক গান এবং বাবার গান গেয়ে সবার মন জয় করে নেন। তার সুরের যাদুতে সবাই ছিল মুগ্ধ।
হল ভরা দর্শকের উল্লাস আর আনন্দে মঞ্চে আসেন নুসরাত ফারিয়া, তিনিও তার অভিনীত বেশ কয়েকটি সিনেমার গান ও প্রচলিত গানের সাথে নাচ পরিবেশন করেন।এবং দর্শকদের সাথে মঞ্চে থেকে সেলফি তুলে আনন্দ যোগান।তিনিও বলেন সিডনি এসে তার মনেই হচ্ছে না তিনি বাংলাদেশের বাইরে আছেন।এই ট্যুর তার বেশ আনন্দের মধ্যেই কাটছে।

সবশেষে মঞ্চে আসেন ভাইরাল কিং জায়েদ খান তার বহুল প্রচলিত “কেউ সুখে টানে কেউ দুক্ষে টানে” গানের সাথে নাচ করতে করতে।সেই সময় উপস্থিত দর্শকদের ভেতর দারুন উল্লাস ও আনন্দের পরিবেশ তৈরী হয়।তিনি  শুধু নাচই পরিবেশন করেন নি দর্শকের অনুরোধে তার বিখ্যাত ডিগবাজিও তিনি দিয়েছেন এবং দর্শকদের তার স্বকন্ঠে গানও শুনিয়েছেন।তিনি বলেন যে এমন উচ্ছ্বসিত দর্শকদের পেয়ে তিনি আপ্লুত।সিডনি তে তার এত ভক্তেদের দেখা পেয়ে তার এই আনন্দ  দ্বিগুন বেড়ে গেছে।

ফাগুন হাওয়ার এই বহৎ বৈশাখী আড্ডার আয়োজনের  তাকে সহযোগীতা জন্য তার টীমের সকল কে  আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। ফাগুন হাওয়ার জন্ম লগ্ন থেকে পাশে থাকার জন্য এবং সর্ব রকম সহযোগীতা করার জন্য সাবেক কাউন্সিলর শাহে জামান টিটুকে বিশেষ সম্মাননা সরূপ উত্তরীয় পরিয়ে দেন সংগঠনের পক্ষ থেকে তিশা তানিয়া।
উল্লেক্ষ যে ফাগুন হাওয়ার বৈশাখী আড্ডাকে সফল করতে সক্রিয় ভাবে কাজ করেছেন নাজমুল হক, জাহিদ হাসান , শুভ সাথী, কিশোয়ার আক্তার,  মুসলিমা হাই, আয়শা ইসলাম তন্নী, জুঁই সেন পাল, সাবাবা সনি, মাহফুজ আহমেদ,এমডি এনামুল প্রমুখ।

তিশা তানিয়া সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনা করেন।
অনুষ্ঠানের সুদৃশ্য ডেকোরেশেনে ছিলেন কানিতা’স ইভেন্ট সলিউশন, সাউন্ডে ছিলেন টাবু সঞ্জয়, ফটোগ্রাফীতে ছিলেন ফটোলিয়ার কে দে আকাশ।সার্বিক সহযোগীতায় ছিলেন ফাগুন হাওয়া টীম।
 

বিষয়:

আরও পড়ুন

avertisements 2