avertisements 2

শ্মশানে লাশের সারি; অন্যদিকে আইপিএলে টাকার ওড়াউড়ি

ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশ: ১২:০০ এএম, ২৬ এপ্রিল,সোমবার,২০২১ | আপডেট: ০৬:২৩ এএম, ১৫ মে,শনিবার,২০২১

Text

ভারতে ভয়াবহ রূপ নিয়েছে করোনা সংক্রমণ। মৃত্যু বেড়ে গেছে অনেক। হাসপাতালে সিট নেই। সারা ভারতের বিভিন্ন হাসপাতালে অক্সিজেনের তীব্র সংকট চলছে। শ্মশানঘাটগুলো লাশে ভরে উঠেছে। এত লাশের শেষকৃত্য করতে হিমশিম খাচ্ছেন কর্মীরা। বহু মানুষকে প্রিয়জনের লাশ নিয়ে লাইন ধরে বসে থাকতে হচ্ছে। এমন পরিস্থিতের মাঝে ভারতের মাটিতেই চলছে আইপিএল। দেশের বিপদের সময় কীভাবে আইপিএলের মতো টুর্নামেন্ট চালানো হয়; সে বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন সাবেক অজি সুপারস্টার অ্যাডাম গিলক্রিস্ট।

ভারতের কোনো সাবেক বা বর্তমান ক্রিকেটার এখনও এই প্রশ্ন তোলার সাহস করেননি। কিন্তু গিলক্রিস্ট করেছেন। তার একাত্মতা ঘোষণা করে অনেকেই বিসিসিআইয়ের নৈতিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। টুইটারে গিলক্রিস্ট লিখেছেন, ‘এ মুহূর্তে ভারতে কোভিড পরিস্থিতি খুবই খারাপ। এ অবস্থায় আইপিএল চালিয়ে যাওয়াটা কতটুকু ঠিক? নাকি এই আইপিএলই কঠিন সময়ে ভারতের মানুষকে কিছুটা হলেও স্বস্তি দিচ্ছে! যেটিই হোক ভারতীয়দের জন্য আমার শুভ কামনা সব সময়ই থাকবে।’

গিলক্রিস্টের প্রশ্নের জবাবে অবশ্য আইপিএল ইতিহাসের সবচেয়ে দামি ক্রিকেটার প্রোটিয়া অল-রাউন্ডার ক্রিস মরিস বলেছেন, এই কঠিন পরিস্থিতিতে মানুষকে স্বস্তি দিতেই নাকি আইপিএল চালানো হচ্ছে। গতকাল ম্যাচ শেষে রাজস্থান রয়্যালসের এই ক্রিকেটার বলেন, ‘চারদিকে যা হচ্ছে, তা অনুধাবন করতে পারাটা খুবই কঠিন এক ব্যাপার। এসবের মধ্যে আমাদের দায়িত্ব হচ্ছে মুখে হাসি নিয়ে খেলে যাওয়া। আমাদের হাসার অনেক কারণও আছে।’

তবে ১৬ কোটি ২৫ লাখ মূল্যের ক্রিস মরিসের এই মতবাদকে বেশিরভাগ ভারতীয়ই গ্রহণ করেননি। ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে এখন লকডাউন চলছে। কিছু জায়গায় জারি করা হয়েছে কারফিউ। অনেক মানুষ ঘরবন্দী। ভারতে যখন করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা প্রতিদিন বাড়ছে, সংক্রমণ রেকর্ড ছাড়িয়ে যাচ্ছে, মানুষ হাসপাতালে শয্যা না পেয়ে হাহাকার করছে, সেখানে বিনোদনমূলক ক্রিকেট আইপিএল কতটা যুক্তিসংগত? তবে অপর একটি দল বলছে, আইপিএল দেখে স্বস্তি পাচ্ছেন ঘরবন্দি মানুষেরা।

বিষয়:

আরও পড়ুন

avertisements 2