avertisements 2

ইসরাইলকে রাফায় হামলা বন্ধের নির্দেশ আইসিজের

ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশ: ১২:০০ এএম, ২৫ মে,শনিবার,২০২৪ | আপডেট: ০৬:১২ এএম, ১৫ জুন,শনিবার,২০২৪

Text

ফিলিস্তিনের রাফায় সামরিক অভিযান বন্ধ করতে ইসরায়েলকে নির্দেশ দিয়েছেন আন্তর্জাতিক বিচার আদালত (আইসিজে)। শুক্রবার (২৪ মে) নেদারল্যান্ডসের হেগে আইসিজে এ নির্দেশ দেন। খবর আল জাজিরার।

রায়ে আইসিজের প্রধান বিচারপতি নওয়াফ সালাম বলেন, মার্চ মাসে আদালতের শেষ আদেশের পর থেকে রাফাতে মানবিক পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়েছে। ফলে রাফাতে তাৎক্ষণিকভাবে ইসরায়েলের হামলা বন্ধ করতে হবে।
এবার সোমালি জলদস্যুদের কবলে এমভি ব্যাসিলিস্ক

সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা জানিয়েছে, নওয়াফ বলেন, রাফাতে মানবিক পরিস্থিতি এখন ‘বিপর্যয়কর’ হিসাবে শ্রেণীবদ্ধ করা হয়েছে। আদালত নিশ্চিত নয় যে গাজা উপত্যকায় বেসামরিক নাগরিকদের নিরাপত্তা বাড়ানোর জন্য ইসরায়েল যে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে তা যথেষ্ট কি না। বিশেষ করে সম্প্রতি রাফাতে থেকে যারা বাস্তুচ্যুত হয়েছে, তাদের ঝুঁকি কমানোর জন্য যথেষ্ট পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। রাফাতে সামরিক অভিযানের ফলে ফিলিস্তিনি জনগণ ঝুঁকির সম্মুখীন হচ্ছেন।

রাফায় হামলা বন্ধের নির্দেশ দিয়ে নওয়াফ সালাম বলেন, ইসরায়েলকে অবিলম্বে রাফায় সামরিক আক্রমণ বন্ধ করতে হবে। এই হামলা গাজার ফিলিস্তিনি গোষ্ঠীর উপর আঘাত করতে পারে। সেখানে বসবাসকারীদের স্বাভাবিক জীবন ব্যাহত করবে এবং তাদের শারীরিক ধ্বংসও ডেকে আনতে পারে।

আইসিজে কর্তৃক আদেশকৃত ব্যবস্থা প্রয়োগের অগ্রগতি ইসরায়েলকে এক মাসের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি মানবিক সহায়তা প্রবেশের জন্য ইসরায়েলকে রাফা সীমান্ত ক্রসিং খুলে দেয়ার নির্দেশও দিয়েছে আদালত।

রাফায় ইসরায়েলের হামলা বন্ধের দাবি নিয়ে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতের দারস্থ হয় দক্ষিণ আফ্রিকা। দেশটি দাবি, গাজায় ইসরায়েল গণহত্যা চালাচ্ছে। এ কারণে সেখানে হামলা বন্ধ করতে হবে। দক্ষিণ আফ্রিকার আবেদন আমলে নিয়ে শুক্রবার রাফায় হামলা বন্ধের নির্দেশ দেন আইসিজের বিচারকরা। পাশাপাশি এই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে রুল জারি করা হয়।

বিষয়:

আরও পড়ুন

avertisements 2