avertisements 2

বন্যাদুর্গতদের ত্রাণ চুরি; ইউপি সচিব ও উদ্যোক্তা আটক

ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশ: ১২:০০ এএম, ২৪ জুন,শুক্রবার,২০২২ | আপডেট: ০৭:৩৮ এএম, ৪ আগস্ট,বৃহস্পতিবার,২০২২

Text

সম্প্রতি বন্যায় দেশের উত্তর অঞ্চলের সিলেট, সুনামগঞ্জ, নেত্রকোনাসহ বেশ কয়েকটি জেলা প্লাবিত হয়েছে। অনাহারে দিন যাপন করছে সে অঞ্চলের মানুষগুলো। তাদের সাহায্যের জন্য হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে দেশের প্রায় প্রতিটি জেলার মানুষ ও প্রবাসীরা। কিন্তু এই বিপর্যয়কে পুঁজি করে ত্রাণসামগ্রী চুরি করছে কিছু অস্বাদু ব্যক্তি।

এমনই ঘটনা ঘটেছে, নেত্রকোনার খালিয়াজুরী উপজেলার ১নং মেন্দিপুর ইউনিয়ন পরিষদে। সেখানে বন্যায় কবলিত মানুষদের বিতরণের জন্য পরিষদে রক্ষিত ত্রাণসামগ্রী চুরি হয়েছে বলে জানা যায়।

চুরি হওয়া ত্রাণসামগ্রীর মধ্যে ছিল, চাল ৫ কেজির ৩০টি ব্যাগ, ডাল ১ কেজি ১৬টি, লবণ ১ কেজির ১৬টি, ডাল ১ কেজির ১৬টি, সোয়াবিন ১ লিটার ১৬টি, চিনি ১ কেজি ১৬টি, হলুদ ১০০ গ্রাম ১৬টি, মরিচ ১০০ গ্রাম ১৬টি, ধনিয়া ১০০ গ্রাম ১৬টি প্যাকেট।

এবিষয়ে মেন্দিপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আবু হাকিমকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি জানান, আমি সোমবার রাতে ত্রাণসামগ্রীগুলো ইউনিয়ন পরিষদের সচিব মো. মুসা মিয়া ও ইউনিয়ন পরিষদের তথ্য উদ্যোক্তা মো. নাসিম মিয়ার তত্ত্বাবধানে রেখে যায়। সোমবার সকালে এসে ত্রাণসামগ্রী কম দেখতে পেয়ে গণনা করলে চুরির ঘটনা জানা যায়।

তাৎক্ষণিকভাবে ইউএনও স্যারকে অবগত করা হলে তিনি ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে তথ্য উদ্যোক্তা নাসিমের স্টুডিও থেকে চুরি যাওয়া সামগ্রী উদ্ধার হয়। এ সময় বানভাসি মানুষ অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেন। খালিয়াজুরী থানার উপ-পরিদর্শক বিপ্লব মোহন্ত জানান, সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স নিয়ে স্থানীয় গ্রামবাসীর উপস্থিতিতে চুরি যাওয়া ত্রাণসামগ্রী উদ্ধার করে নিজের হেফাজতে রাখি।

এ বিষয়ে খালিয়াজুরী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এএইচএম আরিফুল ইসলাম জানান, ইউপি সচিব মুসা (৪০) ও উদ্যোক্তা নাসিমকে (৩০) আটক করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি বলেন, বানভাসি মানুষের ত্রাণসামগ্রী নিয়ে যারা নয়-ছয় করবে তাদেরকে কোনো ধরনের ছাড় দেয়া হবে না।

বিষয়:

আরও পড়ুন

avertisements 2