avertisements

জি কে শামীমের গোপন জামিন, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেলকে দুদকে তলব

ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশ: ০৩:৪৫ এএম, ১ নভেম্বর,রবিবার,২০২০ | আপডেট: ০৪:৪৭ এএম, ৩ ডিসেম্বর,বৃহস্পতিবার,২০২০

Text

ক্যাসিনোকাণ্ড ও টেন্ডারবাজির ঘটনায় গ্রেপ্তার আলোচিত ঠিকাদার গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জি কে শামীমের সঙ্গে আঁতাত করে ঘুষ লেনদেনের মাধ্যমে গোপনে জামিন করানোর অভিযোগে সুপ্রিম কোর্টের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল জান্নাতুল ফেরদৌসি রুপাকে তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

গতকাল বুধবার দুদকের উপ-পরিচালক ও অনুসন্ধানী কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইব্রাহিম স্বাক্ষরিত এক নোটিশে জান্নাতুল ফেরদৌসি রুপাকে তলব করা হয়েছে।

ওই নোটিশে বলা হয়, সুপ্রিম কোর্টের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল জান্নাতুল ফেরদৌসি রুপার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম, দুর্নীতি, ক্ষমতার অপব্যবহার ও জাল জালিয়াতির মাধ্যমে ঘুষ গ্রহণ করে জি কে শামীমসহ বিভিন্ন আসামির সঙ্গে আঁতাত করে জামিন করিয়ে বিপুল অর্থ হাতিয়ে নেওয়াসহ জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ রয়েছে। 

নোটিশে জান্নাতুল ফেরদৌসি রুপার উদ্দেশে বলা হয়েছে, ‘সুষ্ঠু অনুসন্ধানের স্বার্থে বর্ণীত অভিযোগ বিষয়ে আপনার বক্তব্য শ্রবণ ও গ্রহন করা প্রয়োজন। এ জন্য আগামী ৪ নভেম্বর সকাল ১০টায় রেকর্ডপত্র/কাগজপত্রসহ নিম্ন স্বাক্ষরকারীর কার্যালয়ে হাজির হওয়ার জন্য অনুরোধ করা হলো। নির্ধারিত তারিখ ও সময়ে হাজির হয়ে বক্তব্য প্রদানে ব্যর্থ হলে বর্ণিত অভিযোগ বিষয়ে আপনার কোনো বক্তব্য নেই মর্মে গণ্য করা হবে।’       

এর আগে গত ৪ ও ৬ ফেব্রুয়ারি দুই মামলায় হাইকোর্ট থেকে অন্তর্বর্তীকালীন জামিন পান এস এম গোলাম কিবরিয়া শামীম। তার জামিনের লিখিত আদেশ প্রকাশিত হয় গত ১২ ফেব্রুয়ারি। বিষয়টি প্রকাশের পর ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা হয়। পরে বাতিল হয় জি কে শামীমের জামিন।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর ঢাকায় ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরুর দুই দিন পর ঠিকাদার জি কে শামীমকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। ওই বছরের ২০ সেপ্টেম্বর রাজধানীর নিকেতনে তার নিজ কার্যালয় থেকে বিপুল পরিমাণ মাদক ও অর্থ উদ্ধার করা হয়। যুবলীগ থেকে বহিস্কৃত জি কে শামীমের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগেও মামলা রয়েছে। গত বছরের ২১ অক্টোবর তার বিরুদ্ধে মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন।

বিষয়:

আরও পড়ুন

avertisements