Main Menu

জাঁকজমকপূর্ণ ভাবে অনুষ্ঠিত হল অজি এনএসইউআরস'র গালা নাইট

গত পহেলা ফেব্রুয়ারি প্রায় ৩০০ আমন্ত্রিত অতিথি, শুভানুধ্যায়ী, প্রাক্তন শিক্ষক-শিক্ষার্থী, সমাজের গুনীজনের উপস্থিতিতে পরিপূর্ণ  ছিল Castle Grand Pioneer Theatre. নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি (এনএসইউ)- বাংলাদেশ থেকে পাঠানো ভিডিওর শুভেচ্ছা বার্তা দিয়ে অনুষ্ঠানের শুরু হয় ।

এরপর এক্ঝাঁক খুদে ন্ক্ষত্রের আলোয় আলকিত হয়ে উঠে মঞ্চ.  Aussie Nsuers নতুন প্রজন্ম সানজানা, রুপ্কথা, ফারাহ, সানিকা, আরিবা, জ্যামাইমা তাদের নাচ এবং গান দিয়ে উপস্থিত সকলকে  মূগ্ধ করে. Aussie NSUers Association বিগত নয় বছর ধরে প্রবাসের মাটিতে সফল ভাবে তাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে. তারই ধারাবাহিকতায় অনুষ্ঠানের পরবর্তী পর্বে- প্রতি বছরের মত অনুষ্ঠিত হল 'এজিএম’; এই এলামনাই এসোসিয়েশন এর পুনর্মিলনী ও সাধারণ সভা, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা যারা বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাস করছেন তাদের নিয়ে ।

অনুষ্ঠান সঞ্চালক সামান্তা ইসলাম (সেক্রেটারি মিডিয়া এবং কমিউনিকেশন) এ পর্বে প্রথমে মঞ্চে ডেকে নেন. 'সেক্রেটারি জেনারেল' - তৌহিদ চৌধুরীকে ,- এসোসিয়েশনের কার্যকলাপ নিয়ে পর্যালোচনা করার জন্য। এরপর মঞ্চে আসেন কোষাধ্যক্ষ - নেওয়াজ হাসান। এসোসিয়েশন এর হিসাব-নিকাশ নিয়ে আলোকপাত করেন তিনি। উপস্থিত সকলের ভালবাসা এবং করতালির মাধ্যমে মঞ্চে আসেন এসোসিয়েশন এর সভাপতি 'নাহিদ কামাল ' ,তুলে ধরেন এসোসিয়েশনের স্বপ্ন এবং উদ্দেশ্য। কিভাবে 'একতা, ঐক্য  এবং সংস্কৃতি ধরে রাখার পাশাপাশি এই সংগঠনটি প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে সমাজ গঠনে, মানুষের সাহায্যার্থে। উদাহরণস্বরূপ তুলে ধরেন- বসন্ত উৎসব, ক্যান্সার কাউন্সিল ফান্ড রেইজিং ইভেন্ট, পহেলা বৈশাখে চায়ের দোকান, বিডি কাপ টুর্নামেন্ট সহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক এবং ক্রীড়া কার্জকলাপের অংশবিশেষ। নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির চেয়ারম্যান ও উপাচার্যের বার্তাসহ বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত একটি ডকুমেন্টারি উপস্থাপন করা হয়।উপস্থিত সকলে আনন্দ নিয়ে উপভোগ করেন গেম-শো ।ফাহিমা তালুকদার প্রিটি (সেক্রেটারি ফ্যামিলি এংগেজমেন্ট) মঞ্চে ডেকে নেন প্রতিযোগীদের। বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন এসোসিয়েশনের পরিকল্পনা পরিচালক ' আসাদ জামান আহমেদ।
এরপর গান পরিবেশন করেন নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি'র প্রাক্তন শিক্ষার্থী 'রাজীব বারাই'
নামাজের বিরতির পর 'Bush Fire Appeal' নিয়ে উপস্থিত সকলের সাথে কথা বলেন সংগঠনের সহ-সভাপতি আবুল কালাম ফরহাদ। চৌকষ এবং মূল্যবান অবদানের জন্য এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে '২০১৯ প্রেসিডেন্টস অ্যাওয়ার্ড’ তুলে দেয়া হয় 'জয়েন্ট সেক্রেটারি কমিউনিটি ডেভেলপ্টমেন্ট' শাহিদুর রহমান এর হাতে, যিনি সংগঠনের ফাউন্ডার মেম্বার এবং সাবেক সভাপতি ছিলেন। 


স্পোর্টস সেক্রেটারি 'রিজওয়ান ইসলাম' নেতৃত্বে মঞ্চে উঠে আসেন 'Oz Nsuers Cricket Team' এর সকল সদস্য। পরবর্তী পর্বে নাহার এ দিশা (সেক্রেটারি কমিউনিটি ডেভেলপ্টমেন্ট) কথা বলেন আমন্ত্রিত অথিতি ডাক্তার ‘আয়াজ চৌধুরী'র সাথে। প্রাক্তন শিক্ষার্থীরাও এ পর্বে অংশগ্রহণ করেন। নৈশভোজের পর আলোকচিত্রকর তুমন আহসানের আহ্বানে সবাই একত্রিত হন গ্রূপ ফটো তোলার জন্য। 
পরপর বিজয়ীরা জিতে নেন রাফল ড্র পুরস্কার। সেক্রেটারি তথ্য প্রযুক্তি- এম তাজিম তারেক, যুগ্ম সচিব তথ্য প্রযুক্তি, শামস মওদুদ,  সর্বক্ষণ সহযোগিতা করে যাচ্ছিলেন অনুষ্ঠানের শুরু থেকেই। সকল অপেক্ষার পালা শেষ করে, সুরেলা কণ্ঠের জাদু নিয়ে মঞ্চ আলো করে উপস্থিত হন বাংলাদেশের  অতি পরিচিত কণ্ঠশিল্পি এলিটা করিম।  এলিটা করিম এর সাথে একত্রে মঞ্চে ছিলেন  সিডনি'র আরো দুই প্রিয়মুখ, প্রতিভাবান সংগীতশিল্পি মিতুল হক এবং ফারিবা লরা হক । এলিটা, মিতুল, ফারিবা সকলেই নর্থ সাউথ উনিভার্সিটিটির প্রাক্তন শিক্ষার্থী,। সংগীতের পাশাপাশি এলিটা মনে করিয়ে দিতে থাকেন বিশ্ববিদ্যালয়ে কাটানো সেই দিনগুলো, বন্ধুদের সাথে ফেলে আসা চমৎকার স্মৃতিগুলো।  কিছুক্ষনের জন্য সকলে যেন হারিয়ে যান  আলো আধাঁরির স্মৃতিময় এক জগতে।
ভাতৃত্ব আর ঐক্যবদ্ধতার প্রতিজ্ঞা নিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপনী ঘোষণা করেন সেক্রেটারি এক্সটার্নাল অ্যাফেয়ার্স - মোহাম্মদ ওয়াসিমুল ইসলাম রাতুল। মনোমুগ্ধকর এক সন্ধ্যার ‘হাসি, আনন্দ, সংগীতের’ শেষে- Aussie NSUers Association এর পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়ে হাসিমুখে বন্ধুদের মাঝ থেকে বিদায় নিয়ে বাড়ি ফিরে যান সকলে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি


 


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT