Main Menu

জুতার সাথে বাসায় ঢুকছেন করোনা!

অনেক কিছুতেই বেঁচে থাকে করোনা ভাইরাস। এবার বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, জুতার তলায় করোনা ভাইরাস পাঁচ দিনের বেশি বেঁচে থাকে। বাড়ির বাইরে, বিশেষ করে সুপারমার্কেট, বিমানবন্দর ও গণপরিবহনে যাতায়াত করার পর জুতা বাড়ির ভেতরে নিলেই ঝুঁকি বাড়ে।

আক্রান্তদের কফ-থুথু কিংবা ব্যবহৃত মাস্ক পড়ে থাকে পথঘাটে। যার উপর দিয়ে চলাচল করলে নিয়মিত হাত ধোয়া, মাস্ক পরা, সামাজিক দূরত্ব মানা সত্ত্বেও ব্যবহৃত জুতার মাধ্যমে বাড়িতে ঢুকে যেতে পারে করোনাভাইরাস!

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, জুতার তলায় সবচেয়ে বেশি জীবাণু লাগে। ব্যাকটেরিয়া, ছত্রাক থেকে শুরু করে ভাইরাসও বাদ যায় না। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির ড্রপলেট কিংবা হাঁচি-কাশির মাধ্যমে রাস্তায় করোনা ভাইরাস পড়ে থাকলে জুতার মাধ্যমে তা আপনার ঘরে হাজির হতে পারে। জুতার তলা সচরাচর টেকসই হয়। রাবার কিংবা অন্য সিনথেটিক পদার্থ দিয়ে তৈরি হয় তলা। প্লাস্টিকের তৈরি হলেও উচ্চমাত্রার ব্যাকটেরিয়া বহন করে। চামড়ার জুতাগুলো কেউ ধুয়ে দেয় না বলে জীবাণু তাতে লেগেই থেকে যায়।

অস্ট্রেলিয়ার গবেষকরা বলছেন, জুতার তলায় লেগে থাকা জীবাণু হয়ে উঠতে পারে জীবণুনাশের কারণ। করোনা সংক্রমণ হয়নি এরকম পরিবারের লোকজনও মাস্ক কিংবা সুরক্ষা স্যুট পরে বাইরে বের হলেও কেবল জুতার কারণে ঝুঁকিতে পড়ে যায়। বিভিন্ন দেশের সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞরা এ দাবি সমর্থন করেছেন। সে কারণে, বাসার ভেতরে আলাদা স্যান্ডেল ব্যবহার এবং বাইরে ব্যবহৃত জুতা বাসার ভেতরে না নিয়ে যাওয়ার কথা বলছেন।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT