Main Menu

লকডাউন ওঠার পর স্বাভাবিক জনজীবনের চেহারা কি এরকম হবে?

করোনাভাইরাস বদলে দিয়েছে পৃথিবী। বিশ্বের যে দেশেই থাকুন, কোভিড-১৯ মহামারির দাপটে বদলে গেছে প্রত্যেকের জীবন। বিভিন্ন দেশে যখন লকডাউন বিধিনিষেধ শিথিল করা হচ্ছে তখন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের কিছু ছবি থেকে একটা ধারণা করা যায় যে, লকডাউন ওঠার পর নতুন ধরনের জনজীবনের চেহারা কী হতে যাচ্ছে। অন্তত বেশ কিছুকাল যেহেতু মানুষকে করেনা আতঙ্ক নিয়ে বাঁচতে হবে, তাই নানা দেশে স্বাভাবিক জীবন উপভোগের নানা পথ খোঁজা হচ্ছে। কেমন হতে পারে আমাদের এই নতুন জীবনের চেহারা।
ক্লাসঘর
স্কুলের বাগানে বসে শিশু শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া শেখানো হচ্ছে। উত্তরপশ্চিম ইতালিতে ইভরিয়ায় স্কুল খোলার আগে দুটি কিন্ডারগার্টেন স্কুলে পরীক্ষামূলক ক্লাস নিয়ে দেখা হচ্ছে নতুন শিক্ষা পদ্ধতি কেমন কাজ করবে।
স্কুলের বাগানে বসে শিশু শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া শেখানো হচ্ছে। উত্তরপশ্চিম ইতালিতে ইভরিয়ায় স্কুল খোলার আগে দুটি কিন্ডারগার্টেন স্কুলে পরীক্ষামূলক ক্লাস নিয়ে দেখা হচ্ছে নতুন শিক্ষা পদ্ধতি কেমন কাজ করবে।

পৃথিবীর সব দেশেই সামাজিক দূরত্ব মেনে স্কুল এবং নার্সারি স্কুলগুলো আবার খোলা টিচার এবং শিক্ষার্থীদের জন্য একটা বিশাল চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ক্লাসঘরগুলোর চেহারা বদলে ফেলা হচ্ছে। বহু বাবামা উদ্বিগ্ন যে, বিশেষ করে তাদের ছোট ছেলেমেয়েদের স্কুলে পাঠালে তাদের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার ব্যাপারটা কীভাবে করা সম্ভব হবে?

ইতালির ইভরিয়া শহরে দুটি কিন্ডারগার্টেন স্কুলে পরীক্ষা চালানো হচ্ছে বাগানে বসে পাঠদান কতটা সম্ভব? লকডাউনের পর সেখানে স্কুল খোলার প্রক্রিয়ার অংশ হিসাবে এই পরীক্ষামূলক পড়ানোর পদ্ধতির কার্যকারিতা দেখা হচ্ছে।
পার্ক

নিউ ইয়র্কের ব্রুকলিনে উইলিয়মসবার্গ এলাকায় ইস্ট রিভারের পাশে ডমিনো পার্কে মানুষের বসার জন্য বৃত্ত এঁকে দেয়া হয়েছে। ১৮ই মে ২০২০

নিউ ইয়র্ক সিটিতে ব্রুকলিন এলাকার ডমিনো পার্কে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে বৃত্ত এঁকে দেয়া হয়েছে যাতে মানুষ শুধু ওই বৃত্তের মধ্যে থাকে।

পার্কে স্বাধীনভাবে হেঁটে বেড়ানো, চারপাশে পরিবারের মানুষজনের কলকোলাহল, পাশ দিয়ে জগাররা দৌড়চ্ছেন- পার্কের এসব চিরচেনা দৃশ্য এখন কি হারিয়ে যাচ্ছে? অন্তত অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে লকডাউন উঠে যাবার পর পার্কের দৃশ্য আগামীতে অনেকটাই বদলে যাবে।

অনেক দেশে করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে খেলার মাঠ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এখন পার্ক এবং খেলার মাঠ আবার খোলার প্রক্রিয়া চলছে অনেক দেশে। এতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা যায় কীভাবে, তা নিয়ে নানা চিন্তাভাবনা চলছে।

আমেরিকায় নিউ ইয়র্কের ব্রুকলিনে ডমিনো পার্ক লোকজনকে নিরাপদ দূরত্বে রাখতে ঘাসের ওপর বৃত্ত এঁকে দিয়েছে এবং পার্কে যারা পিকনিক করতে যাচ্ছেন বা রোদ পোহাতে যাচ্ছেন তাদের একেকটি পরিবারকে একেকটি বৃত্তের মধ্যে বসার আহ্বান জানানো হচ্ছে।
কর্মস্থল

দক্ষিণ আফ্রিকার ফুলের বাজারে ফুলের নিলাম হয় এই বিশাল ওয়্যারহাউস থেকে। ৮ই মে ২০২০।

জোহানেসবার্গে ফুলের নিলামের জন্য গুদামকে করোনা সংক্রমণ ঠেকানোর উপযোগী করা হয়েছে প্লাস্টিকের ঘেরা এলাকা তৈরি করে।

লকডাউনের সময় অনেক মানুষ বাসা থেকে কাজ করেছেন। সহকর্মীদের সাথে মিটিংয়ে যোগ দিয়েছেন ভিডিও বা ফোন কলের মাধ্যমে।

কিন্তু মানুষ আবার কর্মক্ষেত্রে ফেরা শুরু করছেন এখন। ফলে কর্মক্ষেত্রেও কাজের পরিবেশ নিরাপদ করার জন্য চাপ বাড়ছে।

জোহানেসবার্গের এই গুদামটিতে প্লাস্টিক দিয়ে ঘেরা এলাকা তৈরি করা হয়েছে। যেখানে একেকটা ঘেরা এলাকার মধ্যে বসে ফুল বিক্রির কাজ করছেন প্রচুর কর্মী। এখানে ৩০ কোটি কাটা ফুল নিলামে বেচা হয়।

দক্ষিণ আফ্রিকায় নিলামে ফুলের বিশাল কেনাবেচা হয় এই বিশাল ফুলের গুদাম থেকে।
বাজারে কেনাবেচা

নেদারল্যান্ডসের রটারডামে স্যুট তৈরির দোকান। করোনা সমস্যার মোকাবেলায় তাদের তৈরি করতে হয়েছে স্পর্শ বাঁচানোর ব্যবস্থা।

নেদারল্যান্ডসের রটারডামে স্যুট তৈরির দোকান। করোনা সমস্যার মোকাবেলায় তাদের তৈরি করতে হয়েছে স্পর্শ বাঁচানোর ব্যবস্থা।

আমাদের বাজার করার রীতিও বদলাচ্ছে। অনলাইনে বাজার করার প্রবণতা বেড়েছে অনেক দেশে করোনা ভাইরাস মহামারির পর। বহু সুপারমার্কেটে এখন বাজার করার জন্য ক্রেতাদের লাইন দিয়ে অপেক্ষা করতে হচ্ছে যাতে সবাই ভিড় করে একসঙ্গে বা নিজের খুশিমত বাজারে ঢুকতে না পারে।

বাজারের ভেতর কেনাকাটার সময় সামাজিক দূরত্ব যাতে বজায় রাখা যায়, তার জন্য ভেতরে ক্রেতাদের ঢুকতে দেয়া হচ্ছে সীমিত সংখ্যায়।

নেদারল্যাণ্ডসের রটারডামে এই পোশাক তৈরির দোকানে করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে লাগানো হয়েছে প্লেক্সিগ্লাসের তৈরি সুরক্ষা স্ক্রিন।

দরজি প্লাস্টিকের মধ্যে কাটা গর্ত দিয়ে হাত ঢুকিয়ে মাপজোক ঠিক করে নিচ্ছেন যাতে খদ্দেরের খুব কাছে আসতে না হয়।
হোটেল রেস্তোরাঁয় খাওয়াদাওয়া

ব্যাংককে রেস্তোরাঁয় টেবিলগুলো পার্টিশান দিয়ে ঘিরে দেয়া হয়েছে। কেউ ব্যবহার করছে কার্ডবোর্ড, কেউ প্লাস্টিক।

ব্যাংককে রেস্তোরাঁয় টেবিলগুলো পার্টিশান দিয়ে ঘিরে দেয়া হয়েছে। কেউ ব্যবহার করছে কার্ডবোর্ড, কেউ প্লাস্টিক।

রেস্তোরাঁয় বন্ধুবান্ধব বা আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে খাওয়ার অভিজ্ঞতা কি আর আগের মত হবে?

থাইল্যান্ডের ব্যাংককে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে লোকে খেতে বসেছেন রেস্তোরাঁয় যেখানে কার্ডবোর্ড আর প্লাস্টিক দিয়ে টেবিলের চারপাশ ঘিরে দেয়াল তুলে দেয়া হয়েছে।

সামাজিক দূরত্ব মানার শর্তেই যেহেতু রেস্তোরাঁ খোলা হয়েছে, তাই দেশটিতে এই শর্ত রক্ষা করতে রেস্তোরাঁগুলো টেবিলের চারপাশ প্লাস্টিক দিয়ে ঘিরে দিয়েছে। অথবা কোথাও কোথাও চেয়ার দিয়ে এমনভাবে প্রতিবন্ধকতা তোলা হয়েছে যাতে কাছাকাছি বসে কেউ খেতে না পারে।
সঙ্গীতানুষ্ঠান

দক্ষিণ কোরিয়ার গোয়াং-এ হাইউন্ডায়ি মোটর কোম্পানি আয়োজন করেছিল ড্রাইভ ইন সঙ্গীতানুষ্ঠানের। গাড়ির ভেতরে বসে সামাজিক দূরত্ব রেখে এবং করোনার ভয়মুক্ত হয়ে প্রচুর মানুষ উপভোগ করেছেন কনসার্ট।

দক্ষিণ কোরিয়ার গোয়াং-এ হাইউন্ডায়ি মোটর কোম্পানি আয়োজন করেছিল ড্রাইভ ইন সঙ্গীতানুষ্ঠানের। গাড়ির ভেতরে বসে সামাজিক দূরত্ব রেখে এবং করোনার ভয়মুক্ত হয়ে প্রচুর মানুষ উপভোগ করেছেন কনসার্ট।

বিশ্বের প্রায় সর্বত্রই জীবন এখনও করোনাভাইরাস মহামারির দাপটে বিপর্যস্ত। কিন্তু তার মধ্যেও অনেক দেশে মানুষ সঙ্গীতানুষ্ঠান বা কনসার্ট উপভোগের জন্য নতুন রাস্তা খুঁজে নিচ্ছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার গোয়াং-এ সঙ্গীতপ্রেমীরা সম্প্রতি তিনদিন ব্যাপী এক সঙ্গীতানুষ্ঠান উপভোগ করল। কে-পপ, ইন্ডি আর শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের এই তিনদিনের জলসা খুবই জনপ্রিয়তা পেয়েছে সঙ্গীতানুরাগীদের কাছে।

তারা নিজেদের গাড়ির মধ্যে বসে নিরাপদে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সঙ্গীত উপভোগ করেছে করোনা পরবর্তী নতুন দুনিয়ার নতুন চ্যালেঞ্জ মেনে নিয়ে।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT