Main Menu

কু সন্তানের মা

তারিকুল খান

কাল গুলিস্তানের মোড়ে, ত্রিশোর্ধ যে পকেটমার জনতার হাতে  গণপিটুনী খেল, তারও আছেএকজন মা।

যে গণিকা, ভদ্র সমাজের মুখোশপরা মানুষদের প্রতিনিয়ত সেবা দিয়ে হয় তাদেরই ঘৃনারশিকার, তারও আছে একজন মা।

কোভিড১৯-এ ভুক্তভোগীর ত্রানের চাল-ডাল লোপাট করা চেয়ারম্যান মেম্বার, তারাও জন্মেছেকোন এক মায়ের পেটের ভেতর। 

কোভিড১৯ কালে,  ত্রানের তেল চুরি করে  খাটের নীচে লুকিয়েছিল যে চোর, সেও জন্মেছিলকোন এক মায়ের জঠরে।

দিল্লির চলন্ত বাসে  নির্ভয়াকে গনধর্ষন করে চারজন, বিশ্বব্যাপি কুক্ষাত হয়েছিল যে সবলম্ম্পট, তারাও কিন্তু জন্মেছিল মায়ের উদরে। 

আবু গারাইব কারাগারে, দিগম্বর নারী- পুরুষের স্তুপ বানিয়ে, সিগারেট হাতে যে নারী করেছিলনারকীয় উল্লাস,  সেও জন্মেছিল এক ভিনদেশী মায়ের গর্ভে।

হিরোশিমায় যে সৈনিক অনুবোমা নিক্ষেপে লক্ষ মানুষ নিমিষে করেছিল খুন, সেও জন্মেছিলএক বিদেশী নারীর শরীরে।

আফগান বা ইরাক ভূমিতে বিয়ের আসরে, বারুদ বর্ষনে শত খুন শেষে, স্মীত হেসে যে সৈনিকবলেছিল  সামান্য ভুল হয়েছে; সেও জন্মেছে কোন এক মায়ের গহীন শরীরে। 

বন বাদারে যে বেদ মনের হরষে, শিকার করে ছোট্ট ছানাদের মা পাখিরে, সে মানুষও জন্মেছে  কোন এক মায়ের জঠরে।

অনেক সন্তান আছে জগৎজুড়ে,যারা আপন মাকে পরিত্যাগ করে বাড়তি  সুখের তালাশে। 

সেসব মায়েরাও সন্তান রেখেছিল  সাইত্রিশ সপ্তাহ গভীর যতনে নিজ শরীর ভিতরে। 

সব যাতনা সয়েছে নিজে, নিরাপদ শিশুর জন্ম কামনায় প্রার্থনা ছিল বিধাতার কাছে। 

সাতচল্লিশ হাড় ভাংগার সম্মিলিত কষ্টে প্রসব করেছিল নিজ শিশুকে। 

নারীকাটা ধন বড় করেছে প্রতিপলে প্রয়োজনমত সর্বসেরা দিয়ে। 

কখনো ভাবেনি নিজ সন্তান বড় হলে হবে বিভৎস অত্যাচারী, ধর্ষক, গণিকা  বা খুনি। 

হিংশ্র পৃথিবী, স্বার্থপর পরসম্পদ লোভী, পরশ্রী কাতর ঘৃন্য সমাজ করেছে কিছু মানুষকে “কু” জগৎ জুড়ি। 

একই কষ্ট, বেদনা, স্বপ্ন, আনন্দ ঘেরা

বড় বড় মানুষের মায়েদের মতন; 

তবুও কিছু মায়ের মহাকষ্টের জীবন,

শুধুই নিন্দিত সন্তানের কারন। 

আমার শ্রদ্ধা সযতনে আজ “সু” বা “কু” সন্তান ভেদে, 

সকল মায়ের চরণে। 


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT