Main Menu

তোর যেন করোনা হয়’, বিচারপতিকে অভিশাপ আইনজীবীর!

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে আদালতের কার্যক্রম সীমিত করে আনা হয়েছে। ১৫ মার্চ থেকে অত্যন্ত জরুরি প্রয়োজন ছাড়া নিয়মিত আপিল বা রিটের শুনানি স্থগিত রেখেছে কলকাতা হাইকোর্ট।  তবে সম্প্রতি এক আইনজীবীর নিয়মিত রিট শুনানির আবেদন প্রত্যাখ্যান করায় তিনি আদালতেই বিচারপতিকে হুমকি-ধামকি দিয়ে বলেছন, ‘অভিশাপ দিলাম, তোর যেন করোনা হয়।’

বিচারপতি দিপঙ্কর দত্ত জানান, আইনজীবী বিজয় অধিকারি তার মক্কেলের বাস নিলামের ওপর স্থগিতাদেশ চেয়ে ২৩ মার্চ একটি রিট আবেদন করেন। ঋণের কিস্তি দিতে না পারায় ১৫ জানুয়ারি ওই ব্যক্তির বাস ক্রোক করেছিল ঋণদাতা ব্যাংক। আদালত জরুরি শুনানি হিসেবে এটি গ্রহণের আবেদন প্রত্যাখ্যান করেন। এসময় বিজয় অধিকারি টেবিল চাপড়িয়ে ও মাইক্রোফোন আছাড় দিয়ে বিচারকের বক্তব্যে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন।

বিচারপতি বলেন, ‘অধিকারিকে তার আচরণের জন্য সতর্ক করা হলে তিনি পাল্টা হুমকি দিয়ে আমাকে বলেন, তিনি আমার ভবিষ্যত শেষ করে দিবেন এবং এর জন্য তিনি আমাকে অভিশাপ দিয়ে বলেন, আমি যেন করোনায় আক্রান্ত হই। জবাবে আমি তাকে বলেছি, আমি আমার ভবিষ্যত নিয়ে চিন্তিত নই, আর করোনায় আক্রান্ত নিয়েও ভীত নই। আমার কাছে মহামান্য আদালতই সর্বোচ্চ এবং এ ধরনের আচরণ করলে তার বিরুদ্ধে আমি আদালত অবমাননার রুল জারি করব। অধিকারি আদালতের এই সতর্কবার্তাকে আমলে না নিয়ে উল্টো চিৎকার শুরু করেন এবং সম্মানজনক পেশাজীবীদের সদস্যের মতো আচরণ করেননি। একইসঙ্গে তিনি আদালতের সম্মানকে ভূলুণ্ঠিত করেছেন ‘

অধিকারির এই ‘ন্যাক্কারজনক’ আচরণের জন্য পরে আদালত অবমাননার অভিযোগে স্বপ্রণোদিত হয়ে রুল জারি করে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট বেঞ্চ।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT