Main Menu

বিগত ২০ বছরের মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতি ভালো অবস্থানে রয়েছে

মোঃ শফিকুল আলম: ডিসেম্বর ২০, ২০১৯ সিএনএন এর SQL Server Reporting Service (SSRS) এ তৈরী করা সর্বশেষ জরীপ অনুযায়ী বছর শেষে মার্কিন অর্থনীতি বিগত দুই দশকের মধ্যে সর্বোচ্চ rank এ পৌঁছেছে। এই জরিপের ফলাফল অবশ্যই ডেমোক্র্যাটদের বিরুদ্ধে ২০২০ এর সম্ভাব্য নির্বাচনি চ্যালেন্জ মোকাবেলায় ট্রাম্পকে উৎসাহিত করবে।

৭৬% মানুষের মতে বর্তমান সময়ে মার্কিন অর্থনীতি অত্যন্ত ভালো বা ভালো অবস্থানে রয়েছে। গত বছরের এই সময়ে এই ধারনা পোষন করতো ৬৭%। ২০০১ সালে ৮১% মানুষ মনে করতো মার্কিন অর্থনীতি অত্যন্ত ভালো বা ভালো। আর ১৯ বছর পর প্রায় কাছাকাছি সংখ্যক মানুষ একই ধারনা পোষন করছে।
প্রায় সকল রিপাবলিকান পার্টি সমর্থক (৯৭%), ৭৫% দলনিরপেক্ষ এবং ৬২% ডেমোক্র্যাটরাও মনে করেন মার্কিন অর্থনীতি ভালো অবস্থানে রয়েছে। গত বছর এই সময়ে এই ধারনা পোষন করতো ৯১% রিপাবলিকানস, ৬২% দলনিরপেক্ষ, এবং ৪৭% ডেমোক্র্যাট।

ভবিষ্যত সম্পর্কিত জরীপে এখন থেকে এক বছর পরে এই সময়ে মার্কিন জনগনের ৭০% মনে করেন অর্থনীতি এমনকি আজকের থেকে অধিকতর ভালো হবে। মাত্র ৯% মনে করেন অর্থনীতি এখন ভালো; তবে ২০২০ এ অর্থনীতির ধারা উত্তর থেকে দক্ষিনে চলে যেতে পারে।

অর্থনৈতিক অবস্থা যতোটা অনুমেয় এবং দৃশ্যমান হচ্ছে ২০২০ নির্বাচনে ট্রাম্প এবং তাঁর প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেনের প্রতিযোগিতা ততোটা কাছাকাছি চলে আসছে। জো বাইডেন এবং ট্রাম্পের পজিশন এখন ৪৯% টু ৪৪%। ৫ পার্সেন্টেজ পয়েন্টে জো এগিয়ে যা’ অক্টোবরে ছিলো ১০ পার্সেন্টেজ পয়েন্ট। ডেমোক্র্যাট অন্য প্রার্থী বার্নি স্যান্ডার্স এবং ট্রাম্পের পজিশন ৪৯% টু ৪৫%। এই জরীপ অবশ্য কংগ্রেসে গত বুধবার ট্রাম্পকে ইমপিচ করার ভোটাভিটির পূর্বে অনুষ্ঠিত হয়।

যে ১৫টি স্টেটকে ব্যাটল গ্রাউন্ড হিসেবে মনে করা হয় সেগুলোতে জো বাইডেন এবং ট্রাম্প ৪৭% পয়েন্টে টাই করে আছেন। অন্য ডেমোক্র্যাট প্রার্থী ওয়ারেন থেকে ট্রাম্প (৪৮%-৪৬%) ২ পার্সেন্টেজ পয়েন্টে এগিয়ে রয়েছেন। অপর দিকে বার্নি স্যান্ডারের থেকে অন্তত ৪ পার্সেন্টেজ (৪৯%-৪৫%) পয়েন্টে ট্রাম্প এগিয়ে রয়েছেন।

একজন ভালো প্রেসিডেন্ট রেসে ট্রাম্প অক্টোবর থেকে এখন পর্যন্ত স্থিতাবস্থায় রয়েছেন। ভালো প্রেসিডেন্ট হিসেবে ট্রাম্পের এ্যাপ্রুভাল রেট হচ্ছে ৩৯% এবং তাঁর প্রতিকুলে রয়েছে ৫৩%। অপর দিকে তাঁর প্রধান ডেমোক্র্যাট প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেনের অনুকুলে ৩৯% এবং প্রতিকুলে ৪৭%। অপর অন্যতম ডেমোক্র্যাট প্রার্থী বার্নি স্যান্ডার্সের ফেভারেবল রেট ৪৩% এবং আনফেভারেবল রেট হচ্ছে ৪৪%। ২০১৬ এর নির্বাচনে হিলারী এবং ট্রাম্পের ডিজএ্যাপ্রুভাল রেট ছিলো ৩০% টু ৪৭%। অর্থাৎ ২০১৬’র নির্বাচনপূর্ব প্রেডিকশনে একজন ভালো প্রেসিডেন্ট হিসেবে হিলারী ১৭ পার্সেন্টেজ পয়েন্টে এগিয়ে ছিলেন। নির্বাচন শেষে সকল জরীপ এবং প্রেডিকশন উল্টে গিয়েছিলো।

নাফটা (NAFTA - North American Free Trade Agreement) থেকে বের হয়ে ট্রাম্পের মার্কিন-মেক্সিকো-কানাডা চুক্তিকে সমর্থন করছে আমেরিকার অর্ধেকেরও বেশী জনগন (৫৫%)। মাত্র ১৩% ট্রাম্পের এই অর্থনৈতিক চুক্তিকে ডিজএ্যাপ্রুভ করে। যখন ৩৩% জনগনের নতুন ট্রেড ডিল নিয়ে কোনো মন্তব্য নেই। তবে ৭০% রিপাবলিকান, ৫৩% দলনিরপেক্ষ এবং ৪৪% জেমোক্র্যাটস এই নতুন ট্রেড ডিলকে এ্যাপ্রুভ করে।

আমেরিকার ৭০% জনগন দেখছে বৈদেশিক বানিজ্যে গত ২০১৮ থেকে ২০১৯ এ আমেরিকার অর্থনীতি স্থিতিশীলভাবে লাভবান হয়েছে। ২০১৯ এ মার্কিন রফতানি ছিলো ৭১%; যখন বিপরীতে আমদানি ছিলো মাত্র ১৬%। এক্ষেত্রে অভাবিতভাবে ৭০% রিপাবলিকান, দলনিরপেক্ষ এবং ডেমেক্র্যাট একই মতামত ব্যক্ত করেছে।

মূলত ২০১৮ এর প্রেডিকশনকে অনেকটা মিথ্যা প্রমানিত করে ২০১৯ এ মার্কিন অর্থনীতি আশাতীত ভালো পারফর্ম করেছে। ২০২০ এর প্রডিকশন হচ্ছে মার্কিন অর্থনীতি ২০১৯ এর তুলনায় অধিকতর ভালো পার্ফর্ম করবে।
 


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT