Main Menu

মিলন মিয়ারা ফিরে যায় প্রবাসে মন পড়ে থাকে স্বদেশে

ভাই, আমার ফরমটা একটু পূরণ করে দেবেন? শনিবার (২৩ নভেম্বর) সকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশনের বাইরে মধ্যবয়সী এক ব্যক্তির ডাক শুনে ফিরে তাকাতেই লজ্জাবনত দৃষ্টিতে ফরমটি এগিয়ে দিলেন। পাসপোর্ট দেখে ফরম পূরণ করার ফাঁকে আলাপকালে জানা গেল, ৪২ বছর বয়সী মিলন মিয়া বাহরাইন প্রবাসী।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর থানার আগানগরের বাসিন্দা মিলন মিয়া ১৭ বছর ধরে বাহরাইনে থাকেন। বড় মেয়ের জন্মের আগে তিনি বিদেশে যান। প্রতি তিন বছর পর পর কোম্পানির খরচে দুই মাসের ছুটিতে দেশে আসেন। মিলন মিয়া জানান, বিদেশে কর্মকালীন জীবনে দেশের কথা খুব মনে পড়ে।

Airport

তিনি বলেন, দুই ছেলে-মেয়ে, বৃদ্ধ বাবা-মার কথা খুব মনে পড়ে। অপেক্ষা করেন বহুল প্রত্যাশিত ছুটিতে দেশে আসার দিনটির জন্য। কিন্তু দেশে আসার পর মনে হয় খুব দ্রুত ছুটি শেষ। ছুটি শেষে বিদেশে ফিরলেও মনটা দেশেই পড়ে থাকে।

Airport

ইমিগ্রেশন শেষ করে দুবাইয়ের ফ্লাইট কোন গেট থেকে ছেড়ে যাবে তা জানতে চাইছিলেন বগুড়ার মহাস্থানগড়ের শিবু কান্তি। তিনিও বাহরাইনে যাবেন। তিন বছর ধরে সেখানে চাকরি করেন। কী চাকরি করেন জিজ্ঞাসা করতেই বলেন, বলদিয়ায় (সিটি কর্পোরেশন ক্লিনার) চাকরি করেন। মাসিক বেতন ২০ হাজার টাকা, থাকা কোম্পানির তবে খাওয়া নিজের।

Airport

এত কম বেতনে পোষায় কি না জিজ্ঞাসা করতেই সরল উত্তর, বলদিয়ায় কাজ করেন বলে মিসকিন মনে করে অনেকে বকশিশ দেন। এতে পুষিয়ে যায়। প্রতি মাসে সব খরচ বাদ দিয়েও ২৫ হাজার টাকা বাড়িতে পাঠাতে পারেন।

Airport

তিনি জানান, দুই বছর পর পর দুই মাসের ছুটিতে দেশে পাঠানোর কথা থাকলেও তারা পাঠায় না। ওই সময় দেশে ফেরার জন্য মন আনচান করে। কাজে মন বসে না।

চট্টগ্রামের লোহাগড়ার বাসিন্দা শাহজাহান নামের এক যুবক তিন বছর ধরে মালয়েশিয়ায় চাকরি করেন। তিন মাস আগে দেশে ফিরে বিয়ে করেছেন। নতুন বউকে একা রেখে যেতে খারাপ লাগলেও জীবিকার তাগিদে ফিরে যাচ্ছেন কর্মস্থলে। তবে মনটা স্বদেশেই পড়ে থাকবে বলে জানান তিনি।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT