Main Menu

অব্যবস্থাপনায় হাজী নাছির উদ্দীন কলেজের অস্তিত্ব সংকটে, গ্রামবাসী ও শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

সাতক্ষীরার কলারোয়ার হাজী নাছির উদ্দীন কলেজের শিক্ষার স্বাভাবিক পরিবেশ নিয়ে শিক্ষক, অভিভাবক ও এলাকাবাসী উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন।ঐতিহ্যবাহী এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি  নানা অনিয়ম, দুর্নীতি, অব্যবস্থাপনা ও স্বেচ্ছাচারিতার কারণে অস্তিত্ব সংকটে পড়েছে। সংকট উত্তরণে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ও যশোর বোর্ড এমনকি মন্ত্রালয়ের অনেক সিদ্ধান্ত ও নির্দেশনা বাস্তবায়ন করা হচ্ছে না বলেও অভিযোগ উঠেছে।

বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়,২০১৫ সালে কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষসহ ১০ জন শিক্ষকের জাল সনদের প্রমাণ পায় ডিআইএ। তাদের রিপোর্টের প্রেক্ষিতে ওই শিক্ষকদের এমপিও স্থগিত হয়ে যায়। আর সেই স্থগিত এমপিও ফিরে পেতে দালালদের মাধ্যমে তদবিরসহ নানা ফন্দিফিকিরে ব্যস্ত জাল সনদধারী শিক্ষকরা। কয়েকজন শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক আইনে শাস্তি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানা যায়। কয়েকজন গ্রেফতারও হয়েছিলেন। এসব কারণে, কলেজটির পড়াশোনা বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে। যশোর শিক্ষা বোর্ড ও কলেজসূত্রে জানা যায়, চলতি শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে বাণিজ্য শাখায় মাত্র ১১ জন ভর্তি হয়েছে। অথচ আসন সংখ্যা ১৫০। বিজ্ঞানে ৩৪ জন ভর্তি হয়েছে। মানবিকে ১৪৪ ও বিএম শাখায় ১৬৫ জন। বিএম শাখায় উপস্থিতিতে শতকরা ৪০ নম্বর আর তাই সারাদেশেই বিএম শাখায় ভর্তি বেশি। তবুও ২৫০ আসনের বিপরীতে ভর্তি ১৬৫ জন। মাত্র চার বছর আগে এই কলেজে ১৮০০ বেশি শিক্ষার্থী ছিল।

শিক্ষার্থীদের  লাগানো পোষ্ঠার ছিড়ে ফেলছে জালসনদধারী ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও শিক্ষকরা

অন্যদিকে জালসনদধারী ঐ শিক্ষকরা কলেজের রিজার্ভ ফান্ডে থাকা লাখ লাখ টাকা তুলে কথিত মেরামতের নামে আত্মসাৎ করেছে । এছাড়া শ্রেনী কক্ষের টিন খুলে এমন ভাবে দেয়াল দিয়েছে, বাইরে থেকে দেখলে মনে হবে যাত্রার কোন প্যান্ডেল। 

এলাকাবাসীরা  জানান, বাল্যবিবাহপ্রবণ ও শিক্ষায় পিছিয়ে পড়া এলাকাটি আলোর মশাল জ্বালাতে কলোরোয়ার ছলিমপুরের গর্ব  আন্তর্জাতিক কুমির বিশেষজ্ঞ,  অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী বিশিষ্ট  ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক   তাঁর পিতা  হাজী নাছির উদ্দীনের নামে কলেজটি প্রতিষ্ঠা করেন। প্রতিষ্ঠানটিকে যে কোন ধরনের বিতর্কের উর্ধ্বে রাখতে  তিনি এবং  প্রতিষ্ঠাতা ও দাতা সদস্যরা নিজেদের কোনো আত্মীয়-স্বজনকে এই কলেজে শিক্ষকতা বা অন্য কোনো পদে চাকরি দেননি। সম্পূর্ণ বিনা বেতনে ফ্রি বই দিয়ে শিক্ষার কার্যক্রম শুরু করা হয় এ কলেজে। এর পর ২০০০ খ্রিষ্টাব্দে কলেজটি এমপিওভুক্ত হয়। শিক্ষার পরিবেশ ভালো হওয়ায় দূর-দূরান্ত থেকে শিক্ষার্থীরা ওই কলেজে ভর্তি হত। জেলার মধ্যে হাজী নাসিরউদ্দিন কলেজ পরীক্ষার ফলাফলে সুনাম অর্জন করে। 

 প্রকাশ্যে শিক্ষার্থীদের মারপিট করে  নানা ধরনের হুমকি দিচ্ছে জালসনদধারী ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও শিক্ষকরা

২০১২ খ্রিষ্টাব্দ থেকে কলেজটিতে নানা সংকট শুরু হয়। ওই সময় অবৈধ নিয়োগ ও জাল সার্টিফিকেট দিয়ে চাকরির কারণে ১২ শিক্ষকের বেতন বন্ধ করে দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। শিক্ষকদের বেতন বন্ধের জন্য ওই সময় কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল মমিনকে দায়ী করে মারপিট করে কলেজ থেকে তাড়িয়ে দেয় জাল সনদধারী ওই শিক্ষকরা।

বিক্ষোভ কর্মসূচীতে কলেজের সামনে পুলিশের সতর্ক অবস্হান

দীর্ঘদিন ধরে চলা নানামুখী সমস্যার কারণে শিক্ষক ,অভিভাবক ও এলাকাবাসীর মধ্যেও কলেজটির স্বাভাবিক পরিবেশ নিয়ে উদ্বেগ বিরাজ করছে বলে জানা গেছে। এদিকে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে গ্রামবাসী ও শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে। শনিবার (২৪ আগস্ট) সকাল ১০টায় কলেজের সামনের সড়কে ঘণ্টাব্যাপী এ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হয়।

বিক্ষোভ কর্মসূচীর একাংশ

বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অস্বচ্ছ ম্যানেজিং কমিটি বাতিল, প্রশাসনিক স্বচ্ছতা ও কলেজের আয়-ব্যয়সহ সকল দুর্নীতির ঘটনা তদন্ত করে দোষীদের শাস্তির দাবি তোলা হয়। এ ছাড়া কলেজের অতীত ঐহিত্য ও সুনাম ফিরিয়ে আনাসহ শিক্ষকদের নির্দিষ্ট সময়ে কলেজে উপস্থিতি ও পাঠদান ও পরীক্ষায় অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার দাবিও করা হয়।


অতিতের ন্যায় বিনা বেতনে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার সুযোগ এবং পরীক্ষার ফি মওকুফ করাসহ স্থানীয়দের ম্যানেজিং কমিটিতে অংশগ্রহণের সুযোগ দেয়াসহ ৭ দফা দাবি তুলে ধরা হয় এ মানববন্ধনে।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মো. আব্দুল আহাদ, মিঠু সরদার, কলেজছাত্র আল-আমিন, রুহুল আমিন খান, মো. জনি প্রমুখ।

গ্রামবাসী ও শিক্ষার্থীদের দাবী সম্বলিত পোষ্টার
 
এদিকে বিক্ষোভকারীদের উপর হামলা করেছে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষসহ অভিযুক্ত শিক্ষকরা। এই সময় তারা প্রকাশ্যে শিক্ষার্থীদের মারপিট করে তাদের লাগানো পোষ্ঠার ছিড়ে ফেলে এবং ব্যানার কেড়ে নিয়ে,  নানা ধরনের হুমকি দিতে দেখা যায়।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT