Main Menu

বিএনপিকে ধন্যবাদ, অনেক দেরিতে হলেও বুঝতে পেরেছে: প্রধানমন্ত্রী

চোখের চিকিৎসা, বাংলাদেশি দূতদের সম্মেলন এবং অন্যান্য কর্মসূচিতে যোগ দিতে ব্রিটেনে সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিএনপি’কে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ৪৪তম শাহদাত বার্ষিকীর শোক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, অনেক দেরিতে হলেও বিএনপি বুঝতে পেরেছে। তাই তাদের ৫ জন সংসদ সদস্য সংসদে যোগ দিয়েছেন।

৩০০ আসনে ৬০০-র উপরে প্রার্থীকে তারা মনোনয়ন দিয়েছিল বলেই নির্বাচনে তাদের এমন ভরাডুবি হয়েছে বলে মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটি দল হিসেবে যা যা প্রাপ্য, সংসদে বিএনপিকে দেওয়া হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ কমিটিগুলোতে তাদের সদস্যদের স্থান দিয়েছি।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘নির্বাচন নিয়ে বিএনপি প্রশ্ন তোলে। আবার এই নির্বাচনে বিজয়ী এমপিদের আবার তারা পার্লামেন্টেও পাঠায়। এমন পরস্পর বিরোধিতা কি রাজনীতিতে মানায়? তা সত্ত্বেও বিএনপি এমপিদের পার্লামেন্টে আমরা স্বাগত জানিয়েছি, গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন কমিটিতে অন্তর্ভূক্ত করেছি।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘নির্বাচন জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য হয়েছে বলেই বার বার আন্দোলনের হুমকি দিয়েও বিএনপি তা করতে পারছে না। বিএনপির বিগত দিনের মানুষ পুড়ানো আন্দোলনের কথা কেউ ভোলেনি বলেই তাদের কোন আন্দোলনের ডাকেই সাড়া দিচ্ছে না জনগণ।

বিএনপিকে আত্মসমালোচনার পরামর্শ দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘৯৬ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি তাদের এক তরফা নির্বাচনের বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ আন্দোলন করেছিল, কয়দিন ক্ষমতায় ঠিকতে পেরেছিলেন তারা? ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিন। আসলে জনগণকে সম্পৃক্ত করতে না পারলে কোন আন্দোলনই সফল হয় না।

এসময় ডেঙ্গু নিয়েও কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘চোখের চিকিৎসার কারণে এবার দীর্ঘদিন লন্ডনে থাকতে হলো। তবে ডেঙ্গুর বিরুদ্ধে সরকার ও আমাদের দলসহ দেশবাসী যুদ্ধ করছেন। নিয়মিতই আপডেট পাচ্ছি, প্রয়োজনীয় পরামর্শও দিচ্ছি। ইনশাআল্লাহ এ পরিস্থিতিও অতিক্রম করবো আমরা।’

জাতীয় শোক দিবসের আলোচনায় ৭৫ পরবর্তী সময়ের স্মৃতিচারণ করে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা বলেন, ‘জীবনের সেই কঠিন দুঃসময়ে তারা দুবোন প্রবাসী বাঙালিদের পাশে পেয়েছেন। জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুসহ পরিবারের সদস্যদের স্মরণ করতে গিয়ে স্মৃতিকাতর হয়ে পড়েন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় তার গলা ধরে আসে বার বার।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘রাজনীতির লক্ষ্য যদি হয় জনগণের ভাগ্যন্নোয়ন, তাহলে সে রাজনীতি সফল হবেই। ১৯৯৬-২০০১ এবং বিগত ১০ বছরের শাসনামলে আওয়ামী লীগ প্রমাণ করেছে এই দলটির রাজনীতির লক্ষ্য দেশ ও দেশের মানুষের উন্নয়ন। আর একারণেই বার বার মানুষ এই দলকে ক্ষমতায় পাঠাচ্ছে।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT