Main Menu

‘টসে জিতে শ্রীলংকা প্রথম সাঁতার কাটার সিদ্ধান্ত নিল’

গতকাল লংকানদের বিপক্ষে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী ছিল বাংলাদেশ। বৃষ্টি ও বৈরি আবহাওয়া সে আশার গুঁড়ে বালি দিয়ে দিল। বৃষ্টিতে ভেসে গেল সেই ম্যাচ, যে ম্যাচ জিতবে বলে ভবিষ্যৎবাণী দিয়েছিল সাবেক কিউই অধিনায়ক ব্রান্ডন ম্যাককালাম। আর সে ম্যাচই মাঠে গড়াল না।

শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ায় চরম হতাশ টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। হতাশ বিশ্বের ক্রিকেটভক্তরাও। এই ম্যাচটির ওপরই যেন চোখ ছিল বিশ্ববাসীর। ম্যাককালামের সেই ভবিষ্যৎবাণীর কথা স্মরণ করেই হয়ত।

আইসিসির টুইটে সেই হতাশা রিটুইট করে ক্ষোভ ঝাড়লেন তারা। মাঠে বৃষ্টির পানি সরাতে পিচ ঢেকে রেখে তাতে পরিচর্চা চলছে এমন ছবিসহ আইসিসি থেকে টুইট করা হয়, ব্রিস্টলে বৃষ্টির কারণে আজকের ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা হলো। সেখানে অনেকেই রিটুইট করেছেন, টসে জিতে শ্রীলংকা প্রথম সাঁতার কাটার সিদ্ধান্ত নিল।

আইসিসির সমালোচনায় এমন ব্যাঙ্গাত্মক রিটুইট করেছেন অনেকেই। হাসান রাজা নামের এক পাকিস্তানি লিখেছেন, বিশ্বকাপের মতো এতো বড় আসর কি করে এভাবে আয়োজন করা হচ্ছে? এই মৌসুমে ইংল্যান্ডের আবহাওয়া এমনটাই থাকবে তা আবহাওয়াবিদরা আগেই জানিয়েছেন। তবু কেন এসব ভেন্যুতে এমন সময়ে ম্যাচগুলোর আয়োজন করা হচ্ছে? এটা দলগুলোর জন্য অসৌজন্যমূলক। এটা আইসিসির বোকামী।

খেলা দেখতে এসে হতাশ হয়ে ফিরে যাওয়া বাংলার ছেলে রিটুইট করেছেন, আইসিসিকে ধিক্কার। এটা সমর্থকদের জন্য অপমানজনক। এ কেমন ফিকশ্চার তা আমার বোধগম্য নয়। একটা রিজার্ভ ডেও রাখা হয়নি। আমি ধারণা করছি বৃষ্টির কারণে ভারতের ম্যাচ এভাবে পণ্ড হলে আইসিসির হুঁশ ফিরবে।

আলিয়া রশিদ লিখেছেন, এটা ঠিক হলো না। বৃষ্টি এসে সব পণ্ড করে দিল। আমরা চার বছর ধরে অপেক্ষা করে এমন দিন প্রত্যাশা করি না। অন্য একজন লিখেছেন, এবারের বিশ্বকাপকে আইসিসি বৃষ্টি কাপ নাম দেয়া হোক।

কেউ কেউ মত দিয়েছেন, এই সময় ইউরোপের কিছু কিছু স্থানে টানা ২৮ দিন বৃষ্টি হবে না বলে আবহাওয়ার পূর্বাভাস জানানো হয়েছে। ওইসব জায়গার বিশ্বকাপ আয়োজন করলে মন্দ হতো না।

উল্লেখ্য, ব্রিস্টলে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচের দিন বৃষ্টি হতে পারে ও ম্যাচ পণ্ড হওয়ার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে এমনটা আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আগেই বলা ছিল। যথারীতি তাই হলো।

এখন পর্যন্ত সব মিলিয়ে বৃষ্টির কারণে মোট ৩টি ম্যাচ পণ্ড হলো এই বিশ্বকাপে। যেখানে একটি বলও মাঠে না গড়িয়ে ম্যাচ পণ্ড হওয়ার একটি রেকর্ড হয়ে গেল এই বিশ্বকাপে। আবহাওয়া অফিসের সংবাদ মতে এই তালিকা আরও বাড়তে পারে। এর আগের রেকর্ডে বিশ্বকাপের ইতিহাসে মাত্র ২টি ম্যাচ একটি বল মাঠে না গড়িয়েই পণ্ড হওয়াটাই সবোর্চ ছিল।

জানা গেছে, বুধবার পাকিস্তান-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে টনটনে যথেষ্ট বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বৃষ্টির সম্ভাবনা প্রায় ৮০% হয়ে আছে বৃহস্পতিবার নটিংহ্যামে ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচে। এই সপ্তাহ জুড়েই ইংল্যান্ডে বৃষ্টি হবে বলে আবহাওয়া অফিসের পূর্বাভাসে জানিয়ে দেয়া হয়েছে।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT