Main Menu

চায়ের দোকানের ছেলেটা ও মন্ত্রীর গল্প!

রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় হুট করে চায়ের তৃষ্ণা পেয়ে গেল। কি আর করা। রাস্তার পাশে নেমেই বেড়া-চাটাইয়ের এক চায়ের দোকানে এক কাপ চেয়ে নিয়ে এক চুমুক। কি ভাবছেন? বলছি সাধারণ মানুষের নিত্যদিনের কোনো গল্প? না কোনো সাধারণ মানুষের নিত্য দিনের গল্প নয় একজন মন্ত্রীর গল্প। গল্প কিন্তু অবাস্তব কোনো গল্প নয়। হার হামেশাই এই ধরনের গল্পের জন্ম দেন কোন মন্ত্রী? খুব সহজেই ধরে ফেলতে পারেন আপনি। হ্যাঁ সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের-এর ঘটনাই এটা।

কয়েকদিন আগে ফেনী শহরের রাস্তার পাশে এমন ঘটনার জন্ম দিলেন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এক টং চায়ের দোকানে নেমে বসলেন। পুরী তৈরি করা হয়েছে। হাতে একটা পুরী নিলেন,। একজন মুরব্বী ব্যক্তি মন্ত্রীকে দেখে এগিয়ে এলে মন্ত্রী তাঁকেও এগিয়ে দিলেন পুরী। এর পরে আদা দেওয়া রঙ চা চুমুক দিতে লাগলেন। চা দিতে যে ছেলেটি এলো তাঁর সাথেও মন্ত্রী জুড়ে দিলেন খোশগল্প। তার সম্পর্কে খোঁজ খবর নিলেন। একজন চা বয় ও মন্ত্রীর এই গল্পের ছবি ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মধ্যে বেশ আলোড়ন তুলেছে। পরে পাশের মাদরাসার শিশু ছাত্রদের সাথে ছবিও তুললেন মন্ত্রী।

সম্প্রতি মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের নিজের ফেসবুক টাইমলাইনে এমনই বেশকিছু ছবি প্রকাশ করেছেন। রীতিমতো ছবিগুলো সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। শুধু মন্ত্রীর ফেসবুক থেকে শেয়ার হয়েছে প্রায় দেড় হাজার। ছবির নিচে মনো র ওশন নামের একজন স্কুল শিক্ষিকা লিখেছেন, 'অসাধারণ।এই ধরনের ছবি গুলো দেখলে শ্রদ্ধা এবং ভালোলাগায় মন ভরে যায়।'

নূর হোসেন নামের আরেক ফেসবুক ব্যবহারকারী লিখেছেন, 'গোটা বাংলাদেশের মন্ত্রী এমপিরা যেখানে নতুন করে নিজেদের নিরাপত্তা নিয়ে ভাবছে সেখানে আমাদের নেতা জননেতা জনাব ওবায়দুল কাদের সাহেব সম্পূর্ণ ভিন্ন। তিনি মনে করেন তিনি সাধারণ মানুষের ভোটে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি তাই সাধারণ জনগণের সাথে থাকতেই পছন্দ করেন।'


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT