Main Menu

অভিবাসীদের রাজনৈতিকভাবে আরো বেশি সচেতন হওয়ার আহবান সিনেটর মেহরিন ফারুকীর

গত ১২ মে রবিবার রকডেলের বনলতা রেস্টুরেন্টে  অস্ট্রেলিয়ার প্রথম মুসলিম নারী সিনেটর মেহরিন ফারুকীর সম্মানে ইফতার ডিনারের আয়োজন করে বাংলাদেশ কমিউনিটি কাউন্সিল অস্ট্রেলিয়া, আমরা বাংলাদেশী, সিডনি প্রেস এন্ড মিডিয়া কাউন্সিল, বাংলাকথা, প্রভাতফেরী, ইসলামী বার্তা ।

চার্লস স্টার্ট ইউনিভার্সিটির শিক্ষক  শিবলী আব্দুল্লাহর সঞ্চালনায় ইফতার ডিনারে সিনেটর মেহরিন ফারুকী ছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন  সাবেক সিনেটর লি রিয়ানন, গ্রীন পার্টি নেতা এমেট ডে ভালদ্রেথে, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সমাজসেবক ও ক্যাম্পবেলটাউন মাল্টি কালচারাল সোসাইটির  সভাপতি এনাম হক,বাংলাদেশ মেডিকেল সোসাইটি অব অস্ট্রেলিয়া এবং কমিউনিটি ফোরাম অব বাংলাদেশের সভাপতি ডাঃ আয়াজ চৌধুরী, বাংলাদেশ কমিউনিটি কাউন্সিল ইনকর্পোরেটেড পক্ষে মোহাম্মদ রাশেদুল হক,  আমরা বাংলাদেশী ইনকর্পোরেটেডের সদস্য ইব্রাহিম খলিল, সিডনি প্রেস ও মিডিয়া কাউন্সিলের সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ আবদুল মতিন,   প্রভাত ফেরীর উপদেষ্টা ডাঃ হালিম চৌধুরী, ইসলামী বার্তার পরিচালক শফিকুর রহমান, বাংলাদেশ লায়ন্স ক্লাব অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি ডাঃ ময়নুল হোসেন প্রমুখ। 


ইফতার ডিনারে  অংশ নিয়ে সিনেটর মেহরিন ফারুকী বলেন, রাজনীতে কোন পরিবর্তনের জন্য এই প্রক্রিয়ায় সাথে  অঙ্গাঅঙ্গি ভাবে জড়িত হতে হয়। এই জন্য প্রত্যেক রাজনৈতিকে  সিদ্বান্তগুলোতে সক্রিয় ভুমিকা রাখা দরকার, তার মানে এই নয় যে  আপনাকে কোন রাজনৈতিক দলে যোগ দিতে হবে।  তবে আপনাকে   সিদ্বান্তগুলোর  ব্যাপারে চোখ কান খোলা রাখতে হবে কারন এটাই এখন আমাদের বাসভূমি  এবং আমাদের নিশ্চিত করতে হবে এটা যেন সেরা আবাসভুমি হয় আমাদের জন্য এবং আমাদের পরবর্তী প্রজন্মের জন্য। লালগালিচা  বিছিয়ে আমাদেরকে কেউ রাজনীতে আমন্ত্রণ  জানাবে  না, আমাদের নিজেদের প্রয়োজনেই  সংক্রিয় হতে হবে।।মুসলিমবিদ্বেষ ও অভিবাসীদের প্রতি ঘৃণা, ধর্মান্ধতা নিয়ে আপনাদের সকলের মতো আমিও উদ্বিগ্ন । গ্রীণ পার্টি সব সময় এগুলোর বিপক্ষে লড়াই করছে।

১০০% নবায়নযোগ্য জ্বালানী, কয়লার ব্যবহার বন্ধ, টেফ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে  ফ্রি কোর্স চালু, সবার জন্য সুলভে ৫০০০০০ আবাসন, অভিবাসীদের পরিবারের সদস্যদের জন্য স্বল্প সময়ে ভিসা প্রসেস সহ  গ্রীন পার্টি অস্ট্রেলিয়ার   বিভিন্ন নির্বাচনী ইশতেহার তুলে ধরে  তিনি বলেন, নিউ সাউথ ওয়েলসে শেষ ক্রস বেঞ্চ আসন নিয়ে গ্রীণ পার্টি অর্থাৎ আমার সাথে ওয়ান নেশন পার্টির প্রার্থীর  হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলছে, আমরা কেউ চাইনা ওয়ান নেশন এই আসনটি  অর্জন করুক। আমি আপানাদের কাছে অনুরোধ করব, আপনার ভোটটি  সঠিকভাবে  প্রয়োগ করুন, যা খুবই মূল্যবান । সেই রাজনৈতিক দল বা ব্যাক্তিকে সমর্থন দিন যে আমাদের কমিউনিটির ইস্যু গুলো বুঝতে পারে, যারা বুঝতে পারে ভবিষ্যতের অস্ট্রেলিয়া কেমন হওয়া উচিৎ, যারা শুধু বিশেষ শ্রেণী নয় প্রত্যেক অস্ট্রেলিয়ানের জন্য  কাজ করবে।

আমি বিশ্বাস করি, আমারা কোথা থেকে এসেছি, আমরা কোন ধর্মে বিশ্বাস করি, আমাদের শরীরের রং কি?  আমাদের পোষ্ট কোড কি বা ব্যাংকে কি পরিমান অর্থ আছে এসব ছাড়াই  আমরা সকলে মিলে আমাদের ভবিষ্যত বিনির্মান করতে পারি।

তার সাথে ইফতার ডিনারের আয়োজন করার জন্য তিনি সকলকে ধন্যবাদ জানান।

ইফতার ডিনারে অংশ নিয়ে সাবেক সিনেটর লি রিয়ানন  বলেন, এই নির্বাচন খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি নির্বাচন এবং  সিনেটে মেহরিন ফারুকীর ফিরে যাওয়া আপনাদের কমিউনিটির জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিশেষ করে সকল মুসলিম কমিউনিটি, অ্যারাবিক কমিউনিটি, চাইনিজ কমিউনিটি  সর্বোপরী সকল অস্ট্রেলিয়ানদের জন্য তা খুবই জরুরী।  তিনি এই ব্যাপারে সকলে সক্রিয় ভুমিকা রাখার আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ লায়ন্স ক্লাব অস্ট্রেলিয়া এবং আয়োজকদের পক্ষ থেকে সিনেটর মেহরিন ফারুকী, সাবেক সিনেটর লি রিয়ানন  এবং গ্রীন পার্টি নেতা এমেট ডে ভালদ্রেথে হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেওয়া হয়। এই সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এবং প্রভাত ফেরীর  প্রকাশক  সোলায়মান দেওয়ান আশরাফী, ডাঃ জেসি চৌধুরী, রাশেদুল ইসলাম।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT