Main Menu

জমকালো আয়োজনে  অনুষ্ঠিত হলো সাস্ট অ্যালামনাই অস্ট্রেলিয়ার পুনর্মিলনী ২০১৯ 

সিলেটের শাহজালাল  বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশালাকার ক্যাম্পাসের সুন্দর ও স্মৃতিময় দিনগুলো পার করে এখন তারা অস্ট্রেলিয়ায় বসবাস করছেন।  সিনিয়র জুনিয়র মিলে গড়ে তুলেছেন সাস্ট অ্যালামনাই অস্ট্রেলিয়া। তাদেরই উদ্যোগে গত ২৭ শে এপ্রিল ২০১৯  সিডনির গ্রীনএকর লিবার্টি হিল ক্রিশ্চিয়ান সেন্টারে অনুষ্ঠিত  হলো সাস্ট অ্যালামনাই অস্ট্রেলিয়ার পুনর্মিলনী ২০১৯ এবং নতুন কার্যকরী কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠান  ।  প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জনপ্রিয় লেখক, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডঃ মুহাম্মদ জাফর ইকবাল এবং  পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সাবেক অধ্যাপক ড. ইয়াসমিন হক । বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন শাহজালাল  বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি  বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাকালীন প্রাক্তন শিক্ষক, এ এস ডব্লিউ গর্ভমেন্টের প্রিন্সিপাল ইকোনমিস্ট  ড. মাকসুল বারী।

 
সাস্ট এলামনাই ইন অষ্ট্রেলিয়া ইনক সংক্ষেপে সাস্ট এলামনাই হিসাবে পরিচিত এবং ২০০৬ থেকে অনানুষ্ঠানিকভাবে রিইউনিয়নসহ বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রম এবং মানবিক সাহায্য সহযোগিতা করে এসেছে । এবারের আয়োজন হচ্ছে তাদের পঞ্চম । আর এবারই তারা একটি রেজিষ্টার্ড অষ্ট্রেলিয়ান সংগঠন হিসাবে আত্বপ্রকাশ করল ।

 

অনুষ্ঠান শুরু হয়, স্থানীয় এবরজিলান ল্যান্ড ওনাদের সম্মানপূর্বক বাংলাদেশ এবং অষ্ট্রেলিয়ার জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্যদিয়ে । ড. এম জে ই সিদ্দিকী শামিম  সাস্ট এলামনাই ইন অষ্ট্রেলিয়া ইনক এর সংক্ষিপ্ত ইতিহাস তোলে ধরেন । এরপর, সাস্ট এলামনাই ইন অষ্ট্রেলিয়া ইনক প্রথম কার্যকরী কমিটি গঠনের লক্ষ্যে একটি বাৎসরিক সাধারন সভা  হয় এবং আহবায়ক কমিটি তাদের দায়িত্ব প্রথম কার্যকরী কমিটির কাছে হস্তান্তর করে। আহবায়ক  এনামুল কবির খান সুদান এবং আহবায়ক  কমিটির অন্যান্য সদস্যদের ধন্যবাদ দিয়ে নতুন কমিটি তাদের দায়িত্ব বুঝে নেয় । গনেশ ভৌমিকে সভাপতি , লিপু মুর্শেদকে  সম্পাদক করে ২১ সদস্যের কার্যকরী কমিটি গঠন করা হয় । 
অনুষ্ঠানে ড. ইয়াসমিন হক, পাবলিকেশন সেক্রেটারী মোহাম্মদ আলমকে সঙ্গে নিয়ে  সাস্ট এলামনাই ম্যাগাজিনের মোড়ক উম্মোচন করেন   । বিভিন্ন ব্যাচের শিক্ষার্থীরা তাদের প্রিয় শিক্ষকবৃন্দকে কাছে পেয়ে  অনেক বিষয়ে স্মৃতিচারণ করেন । মঞ্চে ড. মাকসুল বারী  শিক্ষার্থীদের অনেক মুল্যবান উপদেশ দান করেন । ড. ইয়াসমিন হক, ড. জাফর ইকবালের সাথে এবং শাবিপ্রবির বিভিন্ন সময়ের অনেক মজাদার গল্প স্মৃতিচারণ করেন ।

ড. জাফর ইকবাল বলেন, তিনি তার প্রাণপ্রিয় ছাত্র-ছাত্রিদের ডাকে অষ্ট্রেলিয়া এসে খুবই আনন্দিত এবং খুশি । অনেক অসাধারণ গল্পসহ শাবিপ্রবির বিভিন্ন সময়ের বিভিন্ন স্মৃতি বিজড়িত ঘটনার কথা বর্ননা করেন । তিনি সাস্ট এলামনাইদের উদ্দ্যেশ্যে বলেন, তোমরা যারা প্রবাসে থাকো এবং এদেশে স্থায়ীভাবে বসবাস করো, তোমরা এজন্যে মন খারাপ করো না যে, তোমাদের দেশের টাকায় পড়াশুনা করেছো আর এখন অন্য দেশে থাকো । বরং তোমারা বিশ্বায়নের এই যুগে দেশের সাথে আরো কিভাবে কাছাকাছি থাকা যায় সেই চেষ্টা করবে এবং এই প্রবাসে থেকেও দেশের জন্য কিছু করার চেষ্টা করবে বলে আমি আশা করি ।

 

হই-হুল্লোড়, সাথে প্রাক্তন ছাত্রদের পরিবার ও তাঁদের সন্তানদের পদচারণে মিলনয়াতনে ছিল উৎসবের আমেজ।  দীর্ঘদিন পর প্রাক্তনদের  পুনর্মিলনী  নতুন এক উল্লাসে মেতেছিল সাস্ট অ্যালামনাই অস্ট্রেলিয়া পরিবার।   অনেকে আবেগাপ্লুত, মনে স্মরন করছিলেন ক্যাম্পাসের সেই সোনালী দিনগুলোর কথা। আর এই আয়োজনে যোগ দিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া জুড়ে ছড়িয়ে থাকা শাহজালাল  বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি  বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ব্যাচের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT