Main Menu

লিঙ্গ নিরপেক্ষ কৃত্রিম কণ্ঠস্বর আবিষ্কার

লিঙ্গ নিরপেক্ষ কণ্ঠস্বর তৈরি করার দাবি করেছেন ভারচু নরডিকস ও কোপেনহেগেন প্রাইড-এর বিজ্ঞানীরা। বিশ্বে প্রথমবারের মতো এমন কণ্ঠস্বর তৈরি করা হলো। কৃত্রিম এ কণ্ঠস্বর ব্যবহার করা হতে পারে ভয়েস অ্যাসিস্টেন্ট সেবাগুলোতে। নতুন এ কণ্ঠস্বর শুনতে নারী বা পুরুষের কণ্ঠ শোনার অনুভূতি দেবে না।

কণ্ঠস্বরটি শোনা যাবে অ্যাপলের সিরি থেকে শুরু করে অ্যামাজনের অ্যালেক্সা পর্যন্ত।

ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড মিররের প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘লিঙ্গহীন’ এই কণ্ঠস্বরের নাম দেওয়া হয়েছে ‘কিউ’। কণ্ঠস্বর প্রযুক্তিকে আরও উন্নত করতেই আনা হয়েছে এটি। স্মার্ট অ্যাসিস্টেন্ট সেবাগুলোতেও এই কণ্ঠস্বর যোগ করার কথা বলছেন নির্মাতারা।

এই প্রকল্প দলের সদস্য জুলি কারপেন্টার বলেন, ‘লিঙ্গভিত্তিক প্রযুক্তি বানানো, বাছাই এবং মানুষ কীভাবে বিশ্বাসযোগ্যতা, বুদ্ধিদীপ্ততা এবং নির্ভরযোগ্যতার বিষয়গুলো মেনে নিচ্ছেন- এসবকিছুর মূলে রয়েছে সাংস্কৃতিক বৈষম্য। কিউ এবার এই বৈশ্বিক আলোচনায় অংশ নিচ্ছে।’

কণ্ঠস্বরটি বানাতে পাঁচ জনের কণ্ঠ রেকর্ড করা হয়েছে বলেও জানা গেছে। যাদের কণ্ঠস্বর নারী বা পুরুষের মধ্যে পড়ে না। এরপর ‘ভয়েস মডিউলেশন’ সফটওয়্যারের মাধ্যমে এই কণ্ঠগুলোকে লিঙ্গ নিরপেক্ষ রেঞ্জের মধ্যে নেওয়া হয়েছে।

কৃত্রিম কণ্ঠস্বরটি পরীক্ষা করার জন্য ৪৬০০ জন ব্যক্তির মাধ্যমে পরীক্ষা করা হয়। তাদের কাছে জানতে চাওয়া হয় এটি পুরুষ নাকি নারীর কণ্ঠস্বর। জবাবের ভিত্তিতে কণ্ঠস্বর আরও পরিবর্তন করে নিখুঁত লিঙ্গহীন কণ্ঠস্বর বাছাই করা হয়েছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

গবেষকরা এখন কিউয়ের কণ্ঠস্বরের ওপর এখন এআই ফ্রেইমওয়ার্ক বানানোর প্রয়াশ চালাচ্ছে বিজ্ঞানীরা।
 


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT