Main Menu

৬০ বছরেও বদলাবেন না গেইল!

পাঁচ ম্যাচ সিরিজের তৃতীয় ম্যাচটি বৃষ্টিতে ভেসে গেছে। চার ইনিংসে দুইটি অর্ধশতক আর দুইটি শতকে করেছেন ৪২৪ রান। তিনিই হয়েছেন প্লেয়ার অব দ্য সিরিজ। এই সিরিজ শুরুর আগেই নিজের বিদায়ের সময় ঘোষণা করেছিলেন স্বঘোষিত ‘ইউনিভার্স বস’। ইংল্যান্ডে আসন্ন বিশ্বকাপের পরই ওয়ানডে থেকে অবসরে যাওয়ার কথা জানিয়েছিলেন তিনি। তবে ব্যাট হাতে যে ফর্মে আছেন, তাতে প্রশ্ন উঠেছে সত্যিই কি বিশ্বকাপটা ওয়ানডেতে গেইলের শেষ টুর্নামেন্ট!

সর্বশেষ চার ইনিংসে গেইল যথাক্রমে ১২৯ বলে ১৩৫ রান, ৬৩ বলে ৫০ রান, ৯৭ বলে ১৬২ রান এবং ২৭ বলে ৭৭ রানের টর্নেডো ইনিংস খেলেছেন। সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে ১৬২ রান করার পরেই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন হয়তো অবসরের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করতে পারেন। কিন্তু পঞ্চম ওয়ানডের পর আবার জানিয়েছেন ওটাই ছিল দেশের মাটিতে খেলা তাঁর শেষ ওয়ানডে।

পুরো সিরিজে রেকর্ডের ফুলঝুরি ছড়িয়েছেন ক্রিস হেনরি গেইল। দ্বিতীয় উইন্ডিজ ক্রিকেটার হিসেবে ওয়ানডেতে ছুঁয়েছেন ১০ হাজার রানের মাইলফলক। শহীদ আফ্রিদিকে পেছনে ফেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এখন সবচেয়ে বেশি ছক্কার মালিকও তিনি। ওয়ানডে ক্রিকেটে এখন তার তিন শতাধিক ছক্কা।

এক সিরিজে রোহিত শর্মার সর্বোচ্চ ২৩ ছক্কার রেকর্ড ভেঙে গড়েছেন ৩৯ ছক্কার রেকর্ডও এখন গেইলের দখলে। তিনি দাবি করেন, ৬০ বছর বয়সেও এখনকার মতো বিধ্বংসী মানসিকতাই থাকবে তাঁর এবং তখনো এভাবেই ব্যাটিং করবেন তিনি। তখনও তার ছক্কা মারার ক্ষমতা ফুরিয়ে যাবে না।

সংবাদমাধ্যমকে গেইল বলেন, ‘এক সিরিজে ৩৯টি ছক্কা, এই বয়সে এসে বিশাল একটা ব্যাপার। তবে ৬০ বছর বয়স হলেও আমার মানসিকতা এমনই থাকবে। বিশ্বসেরা যেকোনো বোলারের বিপক্ষে রান করার যে ক্ষমতা আমার আছে, সেটা কখনো বদলাবে না। তবে খেলার জন্য শরীরের সায় থাকবে কি না, সেটাই ভাবার বিষয়।’

বিশ্বকাপের পর ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে বিদায় নিলেও বিশ্বের বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে খেলা চালিয়ে যাবেন এই ৩৯ বছর বয়সী এই ব্যাটিং দানব।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT