Main Menu

শীতে জমে গেছে ইউরোপ-আমেরিকা, গরমে পুড়ছে অস্ট্রেলিয়া!

একদিকে ভয়াবহ শীতে জমে যাচ্ছে ইউরোপ, আমেরিকা। অন্যদিকে তীব্র গরমে আগুনে পুড়ছে অস্ট্রেলিয়া। পূর্ব এবং কেন্দ্রীয় ইউরোপে প্রচণ্ড শীতে এখন পর্যন্ত কমপক্ষে ৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর মেরু অঞ্চল থেকে আসা হিমশীতল ঘূর্ণি বাতাসে ভয়াবহ শীতে যুক্তরাষ্ট্রে ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে এমন তীব্র শীত সাম্প্রতিক বছরগুলোতে আর দেখা যায়নি। বাতাস এতোটাই ঠান্ডা যে, নিশ্বাস নিতেও নিষেধ করা হচ্ছে। ভয়াবহ ঠাণ্ডা আর বরফাচ্ছন্ন পরিস্থিতিতে জনজীবন স্থবির হয়ে পড়েছে।
 
তীব্র শীতের কারণে কেবল ইউক্রেনেই ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া পোল্যান্ড, রোমানিয়া এবং বুলগেরিয়াতেও বেশ কয়েকজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

সুইডেনের আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, সু্ইডেনের উত্তরাঞ্চলের তাপমাত্রা নেমে হয়েছে মাইনাস ৩৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা চলতি মাসে সর্বোচ্চ শীতের রেকর্ড।

স্কটল্যান্ডে তাপমাত্রার রেকর্ড করা হয়েছে মাইনাস ১১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অপরদিকে, কানাডার টরন্টোতে বর্তমানে তাপমাত্রা কমে দাঁড়িয়েছে মাইনাস ১৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

পৃথিবীর বেশিরভাগ দেশই যখন প্রচণ্ড শীতে কেঁপে অস্থির তখন বছরের শুরুতেই গরমের দাপটে ঘেমে একাকার অস্ট্রেলিয়ার মানুষ। শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ার আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, চলতি বছরের শুরুর মাস শুধু সবচেয়ে উষ্ণ জানুয়ারিই নয় বরং অস্ট্রেলিয়ার ইতিহাসে সবচেয়ে গরম মাসও।

গত বছরের ডিসেম্বরেও অস্ট্রেলিয়াতে তীব্র গরম লক্ষ্য করা গেছে। গত মাসে অস্ট্রেলিয়াতে গড় তাপমাত্রা ছিল ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মাসের মাঝামাঝিতে তাপমাত্রা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT