Main Menu

এবার মন্ত্রী হচ্ছেন মির্জা ফখরুল

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কি মন্ত্রী হচ্ছেন? গতকাল  রাতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এই প্রশ্ন উত্থাপিত হয়। স্থায়ী কমটির একজন সদস্য যিনি দুটি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে দুটিতেই হেরেছেন, তিনি এই প্রশ্ন উত্থাপন করেন।

বিএনপির একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। বৈঠকে বলা হয়, ‘বিএনপি পাঁচটি আসন পেয়েছে। আমাদের মহাসচিব ছাড়া আমরা সবাই হেরেছি।

মহাসচিবকে আমরা অভিনন্দন জানাতে পারি।‘ স্থায়ী কমিটির একজন সদস্য বলেন, ‘আমরা বারবার বলেছিলাম, আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে যেতে, কিন্তু বিএনপি মহাসচিব আমাদের কথা শোনেননি।

তিনি কিসের আশায় ছিলেন আমরা জানি না।’ এসময় ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘শেখ হাসিনা তো আবারও জাতীয় ঐক্যমতের সরকার করবেন।

আমাদের মহাসচিব নিশ্চয়ই সেখানে মন্ত্রী হতে যাচ্ছেন। আমরা এজন্য তাকে আগাম অভিনন্দন জানাতে পারি।’

তোপের মুখে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘নির্বাচনে যাবার সিদ্ধান্ত আমি একা নেই নাই। আপনারা সবাই মিলে নিয়েছিলাম।‘ তিনি বলেন, ‘শেষ পর্যন্ত ভোটে থাকার সিদ্ধান্ত ছিল তারেক সাহেবের, আমার না।‘

‘ভোটের যে ফলাফল দেয়া হয়েছে তাতো আওয়ামী লীগের লোকেরাই বিশ্বাস করেনা। কারচুপির ধরণ দেখে তারা নিজেরাই লজ্জা পেয়েছে। এই নির্বাচন একটা তামাশা হয়েছে।

এখন আমরা সবাইকে আমাদের নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের যৌক্তিকতা বোঝাতে পারব। ধীরে ধীরে আন্দোলন গরে তুলতে পারবো।‘

কিন্তু দলের স্থায়ী কমিটির অন্য একজন সদস্য বলেন, ‘যেহেতু আপনার নেতৃত্বেই দল নির্বাচনে গেছে, সবকিছু জেনেশুনেই আপনি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাই আপনার পদত্যাগ করা উচিৎ।

‘ অবশ্য এব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। বৈঠকে অন্যান্য শরীকদের সঙ্গে আলোচনা করে কৌশল গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।-বাংলা ইনসাইডার


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT