Main Menu

টাকা না দিলে ভারতে বিশ্বকাপ নয় : আইসিসি

বহু বছর ধরেই ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসির সঙ্গে ভারতের বন্ধুত্বের কথা ওপেন সিক্রেট। অনেক ক্ষেত্রেই ভারতের কাছে নতি স্বীকার করতে হয় আইসিসিকে। কিন্তু এবার হলো তার বিপরীত। ভারতকে পাওনা টাকা দেওয়ার জন্য রীতিমতো চাপ দিয়েছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা। হুমকি দেওয়া হয়েছে যে, পাওনা টাকা না দিলে ভারতকে ২০২১ চ্যাম্পিয়নস ট্রফি ও ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপ আয়োজনের স্বত্ব দেওয়া হবে না!

ঘটনার শুরু পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) দায়ের করা একটি মামলা থেকে। দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে রাজী না হওয়ায় ভারতের কাছ থেকে বিপুল অংকের ক্ষতিপূরণ দাবি করে পাকিস্তান। কিন্তু আইসিসির আদালতে হেরে যায় পিসিবি। এরপর মামলা পরিচালনার খরচের ভার বহনে উল্টো পিসিবির কাছে ক্ষতিপূরণ দাবি করে বিসিসিআই। পিসিবি বাধ্য হয়েই সেই ক্ষতিপূরণ দিচ্ছে। বিসিসিআই কর্মকর্তাদের মনে যখন খুশির বন্যা; তখনই টাকা দাবি করে সব গুবলেট করে দিল আইসিসি! কিন্তু আইসসি কেন এই টাকা দাবি করছে?

২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ভারতে অনুষ্ঠিত হয়েছি। এই টুর্নামেন্ট আয়োজনের জন্য কর দিতে হয়েছিল বিসিসিআইকে। পরে সে করের কিছু অংশ ফেরত পেয়েছে বোর্ড। এতে আয়োজনের খরচ কমলেও আইসিসি কোনো পায়নি। ২ বছর পর আইসসি  ক্ষতিপূরণ বাবদ বিসিসিআইয়ের কাছে ২৩ মিলিয়ন ডলার দাবি করেছে আইসিসি। এ বিষয়ে রীতিমতো সমনও জারি করেছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা!  টাকা দেওয়ার সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

মজার ব্যাপার হলো, বিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি শশাঙ্ক মনোহর এখন আইসিসির সর্বোচ্চ পদটিতে আছেন। তার আমলেই বাতিল হয়েছে 'তিন মোড়ল' নীতি। এবার নিজ দেশের কাছে এভাবে ক্ষতিপূরণ দাবি করায় শশাঙ্ক মনোহরের ওপর চটেছে ভারতের ক্রিকেটাঙ্গন। বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্যে বিসিসিআই অর্থ পরিশোধ না করলে চলতি অর্থ বছরে ভারতের রাজস্ব থেকে সেই অর্থ কেটে রাখা হবে। পাশাপাশি ২০২১ চ্যাম্পিয়নস ট্রফি ও ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপ আয়োজনের স্বত্ব ভারতের কাছ থেকে কেড়ে নেওয়া হবে।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT