Main Menu

বেঁচে থাকার জন্যে ৫৩৬ খৃস্টাব্দ কেন ছিল সবচেয়ে বিভীষিকাময় বছর?

আপনি যদি মনে করে থাকেন যে বর্তমানে সবচেয়ে কঠিন সময় পার করছেন, তাহলে বিষয়টাকে এভাবেও ভেবে দেখতে পারেন: পরিস্থিতি তো এর চেয়েও আরো খারাপ হতে পারতো - আমরা হয়তো এখন থাকতে পারতাম ৫৩৬ খৃস্টাব্দেও।

হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে মধ্যযুগ বিষয়ক ইতিহাসবিদ এবং প্রত্নতত্ত্ববিদ মাইকেল ম্যাককরমিকের মতে, পৃথিবী সৃষ্টি হওয়ার পর থেকে মানুষের বেঁচে থাকার জন্যে ভয়াবহ যতো সময় গেছে তার মধ্যে সুনির্দিষ্ট করে ঠিক এই বছরটা না হলেও এই সময়টা ছিল সবচেয়ে খারাপ।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, এই সময়কালে খুবই রহস্যময় এক কুয়াশা সমগ্র ইউরোপ, মধ্যপ্রাচ্য এবং এশিয়ার কিছু অংশকে অন্ধকারে ঢেকে দিয়েছিল। সমান হয়ে গিয়েছিল দিন এবং রাত। এবং এই অবস্থা ছিল এক দু'দিনের জন্যে নয়। টানা দেড় বছর ধরে সূর্যের আলো এসে পৌঁছাতে পারেনি পৃথিবীতে।

বিজ্ঞান বিষয়ক আন্তর্জাতিক সাময়িকী সায়েন্সে এসব কথাই লিখেছেন মাইকেল ম্যাকরমিক। তিনি লিখেছেন, ৫৩৬ খৃস্টাব্দের গ্রীষ্মকালে তাপমাত্রা কমতে কমতে নেমে গিয়েছিল দেড় থেকে দুই ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

বলা হচ্ছে, গত ২৩০০ বছরের ইতিহাসে ওই দশকটাই ছিল সবচেয়ে বেশি ঠাণ্ডার। গ্রীষ্মকালেও চীনে তুষারপাত হয়েছিল। হয়েছিল শস্যহানি। ফলে লোকজনকে থাকতে হয়েছিল খাবারের অভাবে।

আইরিশ ক্রনিকলের রেকর্ডেও এসব তথ্য আছে। সেখানে উল্লেখ আছে যে "৫৩৬ থেকে ৫৩৯ খৃস্টাব্দ পর্যন্ত রুটির মারাত্মক অভাব দেখা দিয়েছিল।" তারপর ৫৪১ খৃস্টাব্দে দ্রুত সংক্রামক ব্যাধি প্লেগ আক্রমণ করে মিশরের পেলসিয়াম বন্দরে।

সেসময় এই রোগ এতো দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে যে প্লেগের কারণে পূর্ব রোমান সাম্রাজ্যের এক তৃতীয়াংশ থেকে অর্ধেক জনগোষ্ঠী বিনাশ হয়ে যায়। ত্বরান্বিত হয় রোমান সাম্রাজ্যের পতনও।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT