Main Menu

মনোনয়ন অনিশ্চয়তায় বর্তমান ও সাবেক পাঁচ মন্ত্রী

দলীয় মনোনয়ন অনিশ্চয়তায় রয়েছেন আওয়ামী লীগের হেভিওয়েট সাবেক ও বর্তমান ৫ মন্ত্রী। আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তাদের আগ্রহের আসনে প্রার্থীতা নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছেন সমর্থক ও কর্মীরা।

বিভিন্ন মাধ্যমে প্রকাশিত বিবরণ ও স্থানীয় নেতা-কর্মীদের সাথে যোগাযোগ করে এসব তথ্যানুযায়ী এমন হেভিওয়েট প্রার্থীদের আগ্রহের আসনে মনোনয়ন কে পাবেন? সেটি এখনও বলা যাচ্ছেনা।

ঢাকা-১৮: রাজধানীর উত্তরা, খিলক্ষেত, বিমানবন্দর, তুরাগ, উত্তরখান, দক্ষিণ খান ও ডুমনি এলাকা নিয়ে গঠিত ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ১ ও ১৭ নং ওয়ার্ড, যা ঢাকা ১৮ আসন।

এ আসনে আওয়ামী লীগের হেভিওয়েট প্রার্থীদের মধ্যে থেকে এবারও নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন।

কিন্তু এ আসন থেকে এবার অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুনকে নৌকার হাল ধরতে দেয়া হবে কিনা তা নিয়ে দুশ্চিন্তা রয়ে গেছে।

চাঁদপুর-১ (কচুয়া): এ আসন থেকে মনোনয়ন ফরম তুলেছেন সাবেক সচিব ও এনবিআরের চেয়ারম্যান গোলাম হোসেন। এ নিয়ে স্থানীয় নেতা কর্মীদের মধ্যে রয়েছে দ্বন্দ্ব।

কেননা আসনের প্রার্থী হিসেবে বরাবরের মতো এবারও মনোনয়নপ্রত্যাশী সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীর। অভিযোগ রয়েছে, এলাকায় গনসংযোগের সময় নিজ দলীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণের ঘটনা ঘটেছে।

চাঁদপুর-২ (মতলব উত্তর-মতলব দক্ষিণ): এ আসনে নৌকার মাঝি হতে মনোনয়ন ফরম কিনেছেন বেশ কয়েকজন। বর্তমানে এ আসন থেকে আওয়ামী লীগের প্রতিনিধিত্ব করছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া। তাই তার সমর্থকেরা দুশ্চিন্তায় রয়েছেন।

কেননা একই আসন থেকে মনোনয়ন নিয়েছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট নুরুল আমিন রুহুল ও তরুণ শিল্পপতি আওয়ামী লীগ নেতা এম ইসফাক আহসান, কেন্দ্রীয় কৃষকলীগ নেতা আমিরুল ইসলাম খোকা, কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা জাকিয়া সুলতানা শেফালি, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম.এ.কুদ্দুছ।

অপরদিকে এ আসনটি ধরে রাখতে ইতোমধ্যে মায়া চৌধুরীর ছেলে সাজেদুল হোসেন চৌধুরী দীপুও মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন। দীপু চৌধুরী বিগত দিনে পিতার সাথেই এলাকার বিভিন্ন সভা ও সামাজিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

চাঁদপুর-৩ (সদর-হাইমচর): আসনটি নিয়ে এখনও ধোয়াশার মধ্যে আছেন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনির আগ্রহের এই আসন থেকে মনোনয়ন ফরম তুলেছেন আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী।

এছাড়াও এ আসন থেকে আরো মনোনয়নপত্র ক্রয় ও জমা দিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, বিশিষ্ট সমাজ সেবক, শিক্ষানুরাগী অধ্যক্ষ ড. মোহাম্মদ হাসান খান, মৎস্যজীবী লীগ নেতা আলহাজ্ব রেদওয়ান খান বোরহান, আওয়ামী লীগের আরেক নেতা জাকির হোসেন মারুফ।

চাঁদপুর-৫: এ আসনে মনোনয়ন নিয়ে দ্বন্দ্বে রয়েছেন সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও বর্তমান সংসদ সদস্য মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম (বীর উত্তম)।

তার আসন থেকে মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ইঞ্জিনিয়ার সফিকুল ইসলাম ও ব্রিগেডিয়ার (অব.) সালাউদ্দিন।

আরো মনোনয়নপত্র ক্রয় করার সম্ভাবনা রয়েছে প্রকৌশলী মোহাম্মদ হোসাইন, অধ্যাপক ফজলুর রহমানসহ কয়েকজনের।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT