Main Menu

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন নিকি হ্যালি?

জনপ্রিয় ও বুদ্ধিদীপ্ত রাজনীতিবিদ নিকি হ্যালি হোয়াইট হাউস ত্যাগ করেছেন। এর মাধ্যমে প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য নিজের পথটি তৈরি করছেন। তিনি নিজেকে ভবিষ্যতে আরো ভালো অবস্থানে সমাসীন দেখতে চাইতে পারেন। ৪৬ বছর বয়সেই তিনি যথেষ্ট সম্মান অর্জন করেছেন। তাই ২০২০ সালে প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করলেও ২০২৪ সালে সেই সম্ভাবনা তৈরি হতে পারে।

ডেমোক্রেটস ও রিপাবলিক্যানদের পছন্দের তালিকায় মিসেস হ্যালি শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছেন। এই যুগে এ ধরনের প্রশংসনীয় অবস্থান থাকাটা বেশ অস্বাভাবিক। তিনি এখন নিজেকে আরো ভালো একটি অবস্থানে খুঁজে পাবেন। তিনি ট্রাম্পের অধীনে সফলভাবে কাজ করেছেন, তাকে স্বাধীনভাবে পরামর্শ দিয়েছেন, মধ্যমপন্থা অবলম্বন করেছেন। দায়িত্ব পালনকালে দুর্নাম ছাড়াই তিনি পদ থেকে অব্যাহতি নিয়েছেন। এখন তিনি চাইলে ভবিষ্যতে নিজেকে আরো ভালো অবস্থানে স্থাপন করতে পারবেন।

 

জাতিসঙ্ঘের রাষ্ট্রদূত থেকে নিকি হ্যালির প্রস্থানে প্রচণ্ড ধাক্কা আসতে পারে। তারপরও তার প্রস্থানটি খুবই স্বাচ্ছন্দ্যের সাথে সংঘটিত হচ্ছে, ট্রাম্প প্রশাসন থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় খুব কম ব্যক্তিকেই ওভাল অফিস এমন সম্মান দেখিয়েছে। নিকি হ্যালি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সাথে সাক্ষাৎ করেছেন, পাশে বসেছেন, হাসিমুখে কথা বলেছেন এবং প্রশংসা করেছেন। ট্রাম্পের পাশে তাকে অট্টহাসিতে ফেটে পড়তে দেখা গেছে। তাদের মধ্যকার বিশ্বস্ততা অপরিবর্তনীয় থাকতে পারে।

স্থলাভিষিক্ত হতে পারেন দিনা পাওয়েল
জাতিসঙ্ঘে নিকি হ্যালির স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন গোল্ডম্যানের নির্বাহী, মিসরীয় বংশোদ্ভূত ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রাক্তন জাতীয় নিরাপত্তাবিষয়ক উপদেষ্টা দিনা পাওয়েল। সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা দিনা পাওয়েল জাতিসঙ্ঘে নিকি হ্যালির স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন। তিনি মধ্যপ্রাচ্যের ব্যাপারে বলিষ্ঠ কণ্ঠস্বর এবং মধ্যপ্রাচ্যের সাথে শক্তিশালী সম্পর্ক গড়ে তোলায় পারদর্শী।

মঙ্গলবার ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, তিনি জাতিসঙ্ঘের পরবর্তী রাষ্ট্রদূত হিসেবে গোল্ডম্যান স্যাকসের নির্বাহীর কথা বিবেচনা করছেন। এই বছরের শেষে নিকি হ্যালি তার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নেবেন। ট্রাম্প বলেন, পদত্যাগের আগে নিজের পদে স্থলাভিষিক্ত হতে পারে সে ব্যাপারে তাকে সহায়তা করবেন নিকি হ্যালি। এরপর তিনি নিকির স্থলাভিষিক্ত হতে পারেন এমন পাঁচজনের একটি তালিকা প্রকাশ করে বলেন, এটি দিনাও পছন্দ করবেন। এয়ার ফোর্স ওয়ান বিমানে আলাপকালে ট্রাম্প এ কথা বলেন।
দিনা হচ্ছে হ্যালির বান্ধবী, যিনি নিয়োগের ক্ষেত্রে সবার থেকে এগিয়ে রয়েছেন।

নিকি হ্যালির দুই বছরের সময় ছিল আজীবনের সম্মান। কিন্তু দুই বছর মেয়াদ পূরণের পাঁচ মাস বাকি থাকতেই এখন পদত্যাগ কেন? একটি সুনির্দিষ্ট কারণ না থাকায়, জল্পনা-গুঞ্জন নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হিসেবে ব্রেট কাভানার শপথ গ্রহণের পরই তার ঘোষণাটি আসে। হোয়াইট হাউসের কঠিন বাস্তবতার কারণেই ট্রাম্প প্রশাসনের শীর্ষস্থানীয় আধুনিক নারীকে পদত্যাগ করতে হয়েছে। আলোচনা-সমালোচনার পরিস্থিতি যেভাবেই কাটিয়ে উঠুক, কাভানার পরবর্তীতে এসব হিসাব-নিকাশ খুব ভালো দেখাচ্ছে না। যুক্তরাষ্ট্রে নিকি হ্যালির পর কে আসছেন তা নিয়ে অনেক বেশি কথাবার্তা হচ্ছে। নিকি হ্যালি তার বিদায়ী ভাষণে প্রেসিডেন্টের মেয়ে ইভাঙ্কার প্রশংসা করেছেন এবং তারপরে তার একটি ছবি টুইট করেছেন।

তিনি কি ইভাঙ্কা ট্রাম্পকে রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব দেয়ার আগ্রহকে প্রকাশ করছেন? ট্রাম্প বলেছেন, ইভাঙ্কা জাতিসঙ্ঘে মার্কিন রাষ্ট্রদূত হিসেবে ‘ডিনামাইট’-এর মতো কাজ করতে পারবে। সবাই জানে ইভাঙ্কা এ পদের জন্য একজন শক্তিশালী প্রার্থী এবং বিশ্বের যেকোনো ব্যক্তির চেয়ে বেশি যোগ্য হবেন। তবে তাকে নিযুক্ত করলে অনেকেই ‘স্বজনপ্রীতি’ নিয়ে সরব হবে, ইভাঙ্কা বিশ্বস্ততা হারাবেন। তারা স্বজনপ্রীতি নিয়ে সরব হওয়ার অধিকার পেয়ে যাবেন এবং আমি স্বজনপ্রীতির অভিযোগে অভিযুক্ত হব।

কিন্তু বুধবার টুইটে ইভাঙ্কা লিখেছেন, হোয়াইট হাউসে বড়মাপের সহকর্মীদের সাথে কাজ করা আমার জন্য সম্মানের। আমি জানি হ্যালির জায়গায় প্রেসিডেন্ট যোগ্য কাউকেই মনোনয়ন দেবেন। তবে সেটা আমি নই। এর আগে নিকি হ্যালির সঙ্গে নিজের ও স্বামী জারেড কুশনারের একটি ছবি পোস্ট করে টুইটারে ইভাঙ্কা লেখেন, জাতিসঙ্ঘে তিনি ছিলেন খুবই সাহসী সংস্কারক ও সত্যের প্রতি অবিচল। তার সাথে বন্ধুত্ব করতে পেরে আমি ও জারেড কৃতজ্ঞÑ তিনি আমাদের জীবনের সত্যিকারের আশীর্বাদ!


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT