Main Menu

উইশ’ খ্যাত সেই মিস ওয়ার্ল্ড সুন্দরীর গোপন বিয়ে ফাঁস

প্রায় ৩০ হাজার প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে এবারের মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের দ্বিতীয় আসরে মুকুট জয় করে নেন জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। তবে ঐশীর চেয়ে এবারের আসরে আলোচনায় এগিয়ে ছিলেন দুইজন। তারা হচ্ছেন লাবণী ও অনন্যা। এর মধ্যে আফরিন সুলতানা লাবণী আলোচনায় চলে আসেন তাকে বিচারকের করা প্রশ্নের হাস্যকার উত্তর দিয়ে। লাবণীকে বিচারক সাদিয়া ইবনাজ ইমি প্রশ্ন করেছিলেন, `তোমাকে যদি তিনটি উইশ করতে বলা হয়, সে উইশগুলো কী হবে এবং কাকে উইশ করতে চাও?` এমন প্রশ্নে লাবণী জানিয়েছিলেন, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সি-বিচ কক্সবাজার, সুন্দরবন এবং পাহাড়-পর্বতকে তিনি উইশ করতে চান। এসব উত্তর রীতিমতো ট্রল ও ভাইরাল হয়ে যায়। 

এই লাবণীকে নিয়েই বেরিয়ে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য। তিনি নাকি বিবাহিত! তার স্বামীর নাম আতাউর রহমান আতিক। জামালপুর সদর বাগেরহাটা কলেজ রোডের বাসিন্দা। ব্যবসার পাশাপাশি কয়েকটি মিউজিক ভিডিওতেও মডেল হয়েছেন তিনি। জামালপুর কোর্টে গিয়ে ২০১৪ সালের ১৮ আগস্ট বিয়ে করেছিলেন তারা। দুই বছর সংসার করার পর ২০১৬ সালের ১৭ মে তাদের ডিভোর্সও হয়। ডিভোর্সের পর লাবণীর নামে দুটি চুরির মামলাও হয়। মামলাগুলো এখনও নিষ্পত্তি হয়নি। 

এ প্রসঙ্গে লাবণীর সাবেক স্বামী আতাউর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। তিনি বলেন,‘ ২০১২ সালের শেষের দিকে আমাদের পরিচয়। এরপর বন্ধুত্ব ও প্রেম। তখন আমি ঢাকাতে থাকতাম। ওর মায়ের চিকিৎসার জন্য অনেক টাকা ব্যায় করেছিলাম। ওর পরিবার আমিই দেখতাম। ভালবেসে বিয়ে করেছিলাম। চকবাজারে সামসুল হক টাওয়ারে ওর নামে (আফরিন এস এল এন্টারপ্রাইজ) আমার দুটি দোকান ছিল, যা এখন নেই। সে আমার সব টাকা নিয়ে অন্যের সঙ্গে ফস্টি নষ্টি করতো। আমার টাকা নিয়ে এক সময় পালিয়ে যায়। ওর নামে চুরির মামলাও করেছি। মামলার এখন চার্জশিট হচ্ছে। পরে সে কিভাবে যেন রাজনৈতিক ক্ষমতাবলে মামলা ২০১৬ থেকে ২০১৮ পর্যন্ত নিয়ে এসেছে।’

এ তথ্য নাকি আতাউর প্রতিযোগিতার আয়োজক স্বপন চৌধুরীকেও জানিয়েছিলেন। তিনি বলেছেন ও তো বিজয়ী হয়নি। এমনিতেই অনেক ঝামেলা হয়েছে। এ নিয়ে আর ঝামেলা বাড়িও না। 

অথচ প্রতিযোগিতাটির শুরুতে এর আয়োজক প্রতিষ্ঠান অন্তর শোবিজের চেয়ারম্যান স্বপন চৌধুরী বলেছিলেন, ‘এবার যদি কোনো প্রতিযোগী মিথ্যা তথ্য দেন কিংবা তথ্য গোপন করেন, পরে তা প্রমাণিত হলে সেই প্রতিযোগীকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হবে। গত বছর মিথ্যা তথ্য দেওয়ার কারণে বিভ্রান্তি হয়েছিল। এবার কেউ মিথ্যা তথ্য দিয়ে নিবন্ধন করলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আমরা নিজস্ব লোকজন এবং সংস্থার মাধ্যমে অংশগ্রহণকারীদের তথ্য যাচাই-বাছাই করছি।’


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT