Main Menu

এবার ‘লাইফ লেসন’ দিলেন তাজ

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও তাজউদ্দীন আহমদের ছেলে তানজিম আহমদ সোহেল তাজ দীর্ঘদিন যাবৎ যে কোনো কারণেই হোক আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড থেকে এখন একটু বাইরে আছেন। তবে সোহেল তাজ দেশের (যুক্তরাষ্ট্র) বাইরে অবস্থান করলেও মাঝেমধ্যেই বিভিন্ন বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন তিনি।

মঙ্গলবার (৭ আগস্ট) সকাল ৬টার দিকে সোহেল তাজ তার নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজে একটি স্ট্যাটাস দেন। সেখানে নতুন প্রজন্মের জন্য সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমদ সোহেল তাজ ভবিষ্যতে স্বৈরাচার কিভাবে চিহ্নিত করা যায় তার কিছু নমুনা দিয়েছেন যাতে নতুন প্রজন্ম ভবিষ্যতে স্বৈরাচার চিহ্নিত করতে পারে।

কিন্তু, নিজের ফেসবুক পেজে স্বৈরাচার চিহ্নিত করার নমুনা দিয়ে তোপের মুখে পড়েছেন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর পদ ছেড়ে দিয়ে আলোচনার জন্ম দেয়া বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রীর ছেল তানজীম আহমদ সোহেল তাজ।

গত মঙ্গলবার সকালে ওই পোস্ট দেয়ার পর সংযোজন-বিয়োজন এবং সংশোধনের জন্য কয়েকবার তা সম্পাদনা করে তার ফলোয়ারদের কাছে সমালোচিত হয়েছেন তাজ।

ওই পোস্টের ধারাবাহিকতায় বুধবার (৮ আগস্ট) বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে ‘লাইফ লেসন’ শিরোনামে আরেকটি পোস্ট দেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজীম আহমদ সোহেল তাজ।

এই পোস্টে নিজের অবস্থান ব্যাখ্যা করেন সোহেল তাজ।

বিডি২৪লাইভ ডটকমের পাঠকদের উদ্দেশ্যে সোহেল তাজের স্ট্যাটাসটি হুবহু নিম্নে দেয়া হল-

লাইফ লেসন:

যদি কোন ব্যক্তি আন্তরিক ভাবে সবার ভালোর জন্য অপ্রিয় সত্য কথা বলে তাহলে তাকে সবাই মিলে বুঝে না বুঝে তাদের পানচিং ব্যাগ বানিয়ে ফেলে।

Where ignorance is bliss, ‘tis folly to be wise. বোকার রাজ্যে ভাল কিছু বলার চেষ্টা করা হচ্ছে সবচে বড়ো বোকামি।

সবার কাছে মাফ চেয়ে সবার জন্য শুভ কামনা ও শুভেচ্ছা।

প্রসঙ্গতঃ আমি আমার সব পোস্টই কম বেশি এডিট করি- যদি বানানে ভুল থাকে বা যদি কিছু অ্যাড করতে হয় ও তাছাড়া আমি আমার পেইজে যা খুশি পোস্ট করব আর যখন খুশি এডিট করব তার জন্য আমার কাউকে কৈফিয়ত দিতে হবে না। কে কখন শেয়ার করল বা অখুশি হল সেটা আমার দেখার বিষয় না।

এডিট: আমি রাজনীতি করি না করতেও চাইনা- তাই আমি থোৱাই কেয়ার করি কে খুশি হল আর কে খুশি হল না।

এডিট: বাবা দেশ স্বাধীন করে জীবন দিল আর মা আওয়ামী লীগ কে নতুন জীবন দিল আর অনেকে আমাকে আওয়ামী লীগ শিখাতে আসছেন? সাবধান- সূর্যের চে বালুর তাপ বেশি হলে তা কার জন্য মঙ্গল আনবে না।

এডিট: আর যারা পল্টি পল্টি বলে মুখে ফেনা তুলছেন- একটু আয়নায় তাকান- আপনাদের সময় যে কি তাণ্ডব হয়েছিল সেটার আমি নিজে সাক্ষী ও বোমাবাজি, ধর্ষণ, গুম, বিনা বিচারে হত্যা করা, ২১ অগাস্ট গ্রেনেড হামলা, কিবরিয়া, আহসানুল্লাহ সহ শত শত হত্যাকান্ড।

এডিট: নতুন নতুন আইন তৈরি করে লাখ লাখ মানুষকে মিথ্যে মামলায় ফেলা।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT