Main Menu

খরার কবলে অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে জনবহুল রাজ্য নিউ সাউথ ওয়েলস

অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে জনবহুল রাজ্য নিউ সাউথ ওয়েলসের পুরোটাই এখন খরার কবলে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যে এ খরা ওই অঞ্চলটিতে স্মরণকালের সবচেয়ে ভয়াবহ। শুষ্ক শীতে তা আরো প্রকট হয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ার মোট কৃষি পণ্যের প্রায় এক-চতুর্থাংশ উৎপাদন হয় নিউ সাউথ ওয়েলসে। বুধবার রাজ্যটির ১০০% খরা কবলিত হয়েছে বলে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

খরা পীড়িত মানুষের সহায়তায় রাজ্য ও ফেডারেল সরকার জরুরি ত্রাণ হিসেবে ৫৭ কোটি ৬০ডলারের তহবিল ঘোষণা করেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

রাজ্যের প্রাথমিক শিল্প বিষয়ক মন্ত্রী নিয়াল ব্লেয়ার বলেন, “রাজ্যে এমন একটি মানুষ নেই যারা আমাদের সম্প্রদায় ও কৃষকদের জন্য এক ফোঁটা বৃষ্টির অপেক্ষা করছে না।”

খরায় মানুষের ভোগান্তি

কৃষকরা খরার কারণে শস্য উৎপাদন করতে পারছে না, মারাত্মক পানি সংকটে আছে এবং গবাদিপশুর খাবার যোগাতে হিমশিম খাচ্ছে।

পশুর খাবারের ব্যবস্থা করতে প্রতি ট্রাক খড়ের জন্য অনেককে ১০ হাজার ডলার পর্যন্ত ব্যয় করতে হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুল।

যে কারণে এই চরম খরা

খুবই কম বৃষ্টিপাতই এ খরা ডেকে এনেছে। অস্ট্রেলিয়ার আবহাওয়া ব্যুরোর তথ্যমতে, দেশের দক্ষিণাঞ্চলে গড়ের চেয়ে কম ৫৭ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে।তাছাড়া, গত জুলাইয়ে নিউ সাউথ ওয়েলসে ১০ মিলিমিটারেরও কম বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

তবে এ খরাই শেষ খরা নয়। আগামী দিনগুলোতে অস্ট্রেলিয়ায় আরো বড় খরা অপেক্ষা করছে বলেও সতর্ক করেছেন আবহাওয়াবিদরা।

কর্মকর্তারা বুধবার নিউ সাউথ ওয়েলসের ২৩ শতাংশ চরমভাবে খরা পীড়িত হয়েছে বলে ঘোষণা করেছেন।

তবে এ অবস্থা কেবল নিউ সাউথ ওয়েলসে সীমাবদ্ধ নেই।পাশের রাজ্য কুইসল্যান্ডের অর্ধেকের বেশি অংশ খরার কবলে পড়েছে।

তাছাড়া, ভিক্টোরিয়া এবং সাউথ অস্ট্রেলিয়াতেও শুষ্ক আবহাওয়া বিরাজ করছে।


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT