Main Menu

থ্রি সিস্টার্স এবং ব্লু মাউনটেন

 বনজ মজুমদার : সিডনী অপেরা হতে প্রায় ৬৫ কিঃমিঃ দূরে Blue Mountain. এ পাহাড়ের কারণে পশ্চিম দিকে শহর বৃদ্ধি আটকে গেছে। শুধুমাত্র বরফহীন পাহাড়কে কেন্দ্র করেই একটি আধুনিক শহর। সেখানে কি নেই! প্রতি ঋতুতে রং বদলালেও সবকিছুই নীল রং-কে কেন্দ্র করে। পর্যটকদের জন্য তীর্থ স্থান।আমরা কত কথাই বলি আর্কষনের জন্য। কানা ছেলের নাম পদ্মলোচন। বাসি খাবার দোকানের নাম সৌরভ। কিন্তু এ পাহাড় আসলেই নীল। এ পাহাড় খোরাস্রোতা ছড়া ও লক্ষ লক্ষ গাছে পরিপূর্ণ। ১৯৫৫ সালে সিডনী বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিদ অধ্যাপক হ্যারি মেসেল গবেষণা করে জানান মূলত “Rayleigh scattering effect" এর কারণে পাহাড় নীল। সূর্যের রশ্মি বাতাসের জলসিক্ত ভারি ধূলিকণায় পড়ে বিক্ষিপ্ত হয়ে ছড়িয়ে যায়। এর মধ্য দিয়ে দূরের কোন বস্তুকে দেখলে চোখ শুধু Blue Shed টাই গ্রহণ করে। তাই Blue Mountain আসলেই নীল।এ পাহাড়ের শিরমনি “Three sisters".। আসলে ৩টি ন্যাড়া পাহাড়। সবাই ভিড় করেন সেখানে। ১৯৫৪ সালে এসেছিলেন রানী এলিজাবেথ ও। নীল পাহাড়ের এ তিন বোনের কাহিনীটি অস্ট্রেলিয়াবাসীর মুখস্থ।

পাহাড় ৩টি হল জ্যামিসন উপতক্যায়। এখানে বাস করত Gundungurra সম্প্রদায়ের লোকেরা। তাদের প্রতিবেশী ছিল Dharruk সম্প্রদায়। উপত্যকার আইন অনুযায়ী দুই গোত্রের মধ্যে বিবাহ নিষেধ। আইন ভাঙ্গার জন্য তো আইন। তাই-ই হল।

Gundungurra গোত্রের এক পরিবারে জন্মেছিল তিন বোন। তারা পরমাসুন্দরী। প্রতিবেশী গোত্রে জন্মেছিল এক পরিবারে তিন ভাই। এরা বীর যোদ্ধা। তিন বোন যথাক্রমে Meehni, Wimlah ও Gunnedoo এক সাথে প্রেমে পড়লেন অপর গোত্রের ঐ তিন ভাই এর। তিন ভাই ভালবাসার টানে আক্রমন করল Gundungurra গোত্রের উপর, এই তিন কন্যাকে কাছে পাওয়ার জন্য।তবে Gundungurra গোত্রের সমাজপতি মানুষকে পাথর ও ঐ পাথরকে মানুষ বানানোর মন্ত্র জানতেন। জান দেব কিন্তু মান দেব না। তিনি তিন বোনকে একসাথে ডেকে পাথর বানিয়ে দিলেন। ইচ্ছে ছিল যুদ্ধ শেষে তিন ভাই ওদের না পেয়ে ফিরে গেলে আবার স্বাভাবিক চেহারা ফিরিয়ে দেবেন। রক্ষা পাবে আইন। পরিহাস হলো যুদ্ধে প্রথমেই তিনি মারা যান। তিন ভাই খুঁজে পান নাই তাদের প্রেমিকাদের। “Three Sisters"-আর ফিরে এলো না। পাহাড় হয়েই দাড়িয়ে থাকলো পর্যটকদের জন্য।

হয়তোবা তিন বোনের জন্য অথবা অন্য কোন কারণে প্রায় ১৭ কোটি বছর আগে একটি আশ্চর্য ঘটনা ঘটে। তিন বোনকে কেন্দ্র করে খাড়া পাহাড়গুলোর মধ্যে প্রাকৃতিকভাবে তৈরী হয় একটি উচুঁ রাস্তা (Cliff Line)। আড়াই ঘন্টা লাগে ঘুরে বেড়াতে। খুব হাঁটার ইচ্ছে ছিল।…..

লেখকঃ ডিআইজি এবং পু‌লিশ ব্যু‌রো অব ইন‌ভেসটি‌গেশন (PBI) এর প্রধান


ADVERTISEMENT

Contact Us: 8 Offtake Street, Leppington, NSW- 2569, Australia. Phone: +61 2 96183432, E-mail: editor@banglakatha.com.au , news.banglakatha@gmail.com

ADVERTISEMENT